সোমবার, এপ্রিল ২৪, ২০১৭
bodrum escort escort bodrum
UCC-LOGO1

পাঠ্যপুস্তকে ভুলত্রুটি বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে: শিক্ষামন্ত্রী

টাইমস প্রতিবেদক: শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, পাঠ্যপুস্তকে ভুলত্রুটি বিষয়ে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) গঠিত তদন্ত কমিটির প্রাথমিক রিপোর্টের ভিত্তিতে দু’জন কর্মকর্তাকে ওএসডি করা হয়েছে এবং এ বিষয়ে বিস্তারিত তদন্তের জন্য একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন সদস্যবিশিষ্ট এ কমিটি সাত কর্মদিবসের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন জমা দেবে। পুর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন পাওয়ার পর পাঠ্যপুস্তকের ভুলত্রুটি এবং এ জন্য কে বা কারা দায়ী, তা বিস্তারিত জানা যাবে এবং সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের বইয়ে ভুলক্রটি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শুধুমাত্র বই ছাপানো, বাঁধাই ও বিতরণের দায়িত্ব পালন করে থাকে এনসিটিবি। প্রাথমিক স্তরের পাঠ্যপুস্তকের পান্ডুলিপি প্রণয়ন, সম্পাদনা, পরিমার্জন ও অনুমোদনের দায়িত্ব পালন করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। একইভাবে মাধ্যমিক স্তরের পান্ডুলিপি প্রণয়ন, সম্পাদনা, পরিমার্জন ও অনুমোদনের দায়িত্ব পালন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক স্তরের পাঠ্যবই মূদ্রণ ও বিতরণে বিশ্বব্যাংক আংশিক আর্থিক সহায়তা প্রদান করে থাকে। যা পেতে নানা রকম আনুষঙ্গিকতা পালন করতে হয়। যার কারনে মূদ্রণের জন্য খুব সীমিত সময় পাওয়া যায়। এক্ষেত্রে কিছু ভুলত্রুটি সত্ত্বেও সকল শিক্ষার্থীর কাছে বছরের শুরুর দিনে বই পৌঁছানো সম্ভব হয়েছে। এতে আমাদের ছাত্রছাত্রীরা উৎসাহিত হয়েছে। সামান্য ত্রুটি-বিচ্যুতির কারণে এ উৎসাহে যাতে ভাটা না পড়ে, সেদিকে সবাইকে খেয়াল রাখতে হবে।

বাংলাদেশে প্রাথমিক থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত পাঠ্যপুস্তক বিতরণকে বিশ্বে শিক্ষাক্ষেত্রে সর্ববৃহৎ কার্যক্রম উল্লেখ করে তিনি বলেন, ২০১০ সালে এ কর্মসুচি চালুর পর থেকে বই বিতরণ অব্যাহত আছে। এবার ৩৬২ মিলিয়ন বই বিতরণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ছেলেমেয়েদের উৎসাহিত করা আমাদের দায়িত্ব। তাদেরকে হতাশ করে দেয়া উচিত হবে না।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, বইয়ের ভুলত্রুটিগুলো সংশোধন করা হবে। যেসব পৃষ্ঠায় বড় ধরণের ভুল রয়েছে, সেগুলো পুনস্থাপন করা হবে।

এসটি/ ১০ জানুয়ারি ২০১৭