ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ ইউনিটে ভর্তি: এখন সময় রিভিশনের


ঢাবি টাইমস
Published: 2018-10-10 23:11:31 BdST | Updated: 2018-12-12 19:17:58 BdST

২০১৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হয়েছিলেন মো. সাইয়েদ বিন আবদুল্লাহ। তিনি এখন আইন বিভাগে পড়ছেন। আসছে শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা। শেষ সময়ে এসে কীভাবে এই ভর্তির প্রস্তুতি নেওয়া উচিত, সে বিষয়ে ধারাবাহিকভাবে পরামর্শ দিচ্ছেন তিনি। এবার শেষ পর্ব।

*এখন নতুন কিছু না পড়াই ভালো হবে। এত দিন ধরে যা পড়া হয়েছে, একবার রিভিশন দিতে পারলে খুব ভালো হয়।

*যে টপিকগুলো একদমই মনে থাকতে চায় না, সেগুলো রিভিশন করা উচিত।

*শেষ মুহূর্তে এসে আত্মীয়স্বজন, প্রতিবেশীদের কাছ থেকে বেশি পরামর্শ না নেওয়াই ভালো। কারণ, এতে পরীক্ষার্থীর মনে অযাচিত ভয় তৈরি হতে পারে। হিতে বিপরীত ঘটতে পারে।

*পরীক্ষার সময়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখা উচিত, যাতে রোল নম্বর, সেট কোড ইত্যাদি পূরণ করতে ভুল না হয়। ভালো পরীক্ষা দেওয়ার পরেও শুধু সেট কোড ভুল করার কারণে পুরো পরীক্ষা বাতিল হয়ে যায় অনেকের।

*সময় ব্যবস্থাপনা পরীক্ষার হলে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সাবজেক্ট অনুযায়ী সময় মেপে মেপে পরীক্ষা দেওয়া উচিত।

*যে প্রশ্নগুলোর উত্তর জানা আছে, সেগুলোর উত্তর চটপট করে দিয়ে ফেলা উচিত। যেগুলো জানা নেই বা যেগুলোতে দ্বিধা আছে, সেগুলো পরে উত্তর করা ভালো।

*বরাবরই কিছু প্রশ্ন বেশ জটিল হয়। এমন জটিল প্রশ্ন দেখে ভয় পেয়ে অনেকে অন্য জানা উত্তরও ভুল করে। এ ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে। জটিল প্রশ্ন দেখে বিভ্রান্ত না হয়ে বাকি প্রশ্নের উত্তর ভেবেচিন্তে দিতে হবে।

*সব প্রশ্নের উত্তর পারা যাবে—এমন কোনো কথা নেই। কাজেই কয়েকটা প্রশ্নের উত্তর না জানা থাকলে বিচলিত হওয়ার কারণ নেই। লক্ষ্য রাখতে হবে যেন জানা উত্তরগুলো কোনোভাবেই ভুল না হয়।

*মাথা ঠান্ডা রাখাটা হলো সবচেয়ে বড় পরীক্ষা। এই পরীক্ষায় যারা ভালো করতে পারে, মূল পরীক্ষাও তাদের ভালো হয়।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।