ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘ ইউনিটে ভর্তির পরীক্ষার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি


মো: আমানুল্লাহ আমান
Published: 2017-10-11 23:18:41 BdST | Updated: 2017-10-21 12:31:26 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খ ও গ ইউনিটের স্বপ্ন শেষ হলেও ঘ ইউনিটের আশা বেঁচে আছে এখনও। শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে পরীক্ষা। তাই এই মুহূর্তে সময় নষ্ট না করে প্রস্তুতি নাও শেষের শুরুর।
­
বাংলা
৩০ নম্বরের পরীক্ষায় ২৫টি প্রশ্ন হয়ে থাকে বাংলায়। সাধারণত গদ্য ও পদ্য- অর্থাৎ প্রথম পত্র থেকে ১২ থেকে ১৩টি প্রশ্ন করা হয়। অধিকাংশ প্রশ্ন করা হয় একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির পাঠ্য বই থেকে। এ অংশে ভালো করার জন্য লেখক ও কবি পরিচিতি, তাঁদের রচনাবলি সম্পর্কে বিশদভাবে জানতে হবে। ১২ থেকে ১৩টি প্রশ্ন করা হয় ব্যাকরণ ও শব্দভিত্তিক অংশ থেকে। ব্যাকরণ অংশের জন্য মুনীর চৌধুরী রচিত নবম-দশম শ্রেণির বোর্ড নির্ধারিত ব্যাকরণ বই অনুসরণ করতে হবে। অধিকাংশ প্রশ্নের উত্তর করার জন্য এ বইয়ের প্রস্তুতিই যথেষ্ট। বাড়তি প্রস্তুতির জন্য অনুসরণ করা যেতে পারে সাইফুর’স এর ‘বাংলা রেমিডি’ বইটি। ভালো করার জন্য বিগত বছরের প্রশ্ন সমাধান করা যেতে পারে। অনেক প্রশ্নের পুনরাবৃত্তি হয় এ বিষয়ে।
­
ইংরেজি
অন্য সব বিষয়ের চেয়ে ইংরেজি প্রশ্ন তুলনামূলক কঠিন হয়। স্বভাবতই ইংরেজির পেছনে প্রতিদিন সময় দেওয়াটা জরুরি। মোট ২৫টি প্রশ্নের মধ্যে সাত থেকে আটটি প্রশ্ন করা হয় গ্রামার অংশ থেকে। এ ক্ষেত্রে S@ifur's Newest Grammar বই ইংরেজির প্রস্তুতিতে কাজে আসে। গ্রামারের জন্য নিয়মিত অনুশীলন করতে হবে এই বইটি।
সবচেয়ে বেশি লক্ষ রাখতে হবে vocabulary-ভিত্তিক প্রশ্নের প্রতি। এখান থেকে প্রতিবছর প্রশ্ন থাকে। vocabulary-ভিত্তিক প্রশ্নের মধ্যে সিনোনিম, অ্যান্টোনিম, এর জন্য S@ifur's Student Vocabulary বই পড়েনি এমন ছা্ত্র ঢাবিতে খুব কমই আছে । comprehension অংশে ভালো করার জন্য “S@ifur's Comprehension” বইটি পড়া যেতে পারে। Comprehension এর ওপর এরচেয়ে ভালো বই বাজারে আর নেই ।
­

সাধারণ জ্ঞান

সাধারণ জ্ঞানের জন্য ‘বুলেট বিশ্ব’ বইটি সাধারণ জ্ঞানের বাইবেল হিসেবে কাজ দিবে । ৩০০ পেইজের ছোট্ট এই বইটি থেকে প্রতি বছর কম/বেশি ৩০টি প্রশ্ন কমন পড়ে। সুতরাং হাজার পেইজের বই বাদ দিয়ে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি হিসেবে এই বইটি অন্তত একবার হলেও পড়ে যেও।

­
ঢাবির সেন্ট্রাল লাইব্রেরি, সন্ধার পরের টি.এস.সি’র তারুন্য,ডাকসুর ১টাকার এক কাপ রঙ চার ধূমায়িত পেয়ালা, ক্যাম্পাসের সব গুলো ভাস্কর্য, স্বর্গের কোন উপত্যকা সম টি.এস.সির সবুজ চত্ত্বর, কার্জন হলের সামনের সবুজ ঘাস , কার্জন হলের দেয়াল, কলা ভবনের সামনে বটতলার পড়ন্ত বিকেল, রাজপথের রাজা লাল ডাবল ডেকার
বাসগুলো তোমার অপেক্ষায়।
­
শুভকামনা থাকবে তোমাদের জন্য । ঢাবি ক্যাম্পাস মুখরিত হোক তোমাদের পদচারণায়।

লেখকঃ মো: আমানুল্লাহ আমান
৪র্থ বর্ষ, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

 

এমএসএল 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।