কোটা আন্দোলনকারীদের সুখবর দিতে চাই: কা‌দের


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-08-12 20:31:00 BdST | Updated: 2018-11-21 12:54:36 BdST

সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা সংস্কারের আন্দোলন যারা করছেন, তাদের জন্য সুখবর আসছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘কোটা আন্দোলন যারা করছেন, তাদের আমি সুখবর দিতে চাই। কিছু দিন ধৈর্য ধরতে অসুবিধা কী? একটা ব্যলেন্স সিস্টেম চালু করার জন্য কিছুটা সময় লাগছে, তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহের জন্য কিছুটা সময় লাগছে। এটা এখন অনেক দূর এগিয়েছে। আমরাও সমাধানের পথ খুঁজছি। আপনাদের হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই।’

রোববার (১২ আগস্ট) বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় অডিটোরিয়ামে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) শোক দিবসের আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

আন্দোলনকারীদের সুখবর দেওয়ার কথা বলার পাশাপাশি সরকারকে তাদের দেওয়া আল্টিমেটামেরও সমালোচনা করেন সরকারের এই সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর কন্যা। ধমক দিয়ে তার থেকে কিছু আদায় করা যাবে না। তার সৎ সাহস অনেক বেশি। আলটিমেটাম দিয়ে শেখ হাসিনার কাছ থেকে অন্তত সুবিধা আদায় করা যাবে না।’

এদিন কোটা সংস্কার আন্দোলন ও নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে আটক শিক্ষার্থীদের মুক্তি ও শিক্ষার্থীদের ওপর হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ সরকারকে আলটিমেটাম দেওয়ায় সে বিষয়ে সাংবাদিকরা মন্তব্য জানতে চাইলে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘আমি তাদের অনুরোধ করব, আস্থা রাখুন শেখ হাসিনার ওপর। আমি কিশোর-কিশোরীদেরও অনুরোধ করব, ৯ দফা দাবি আমরা অক্ষরে অক্ষরে মেনে নিয়েছি। প্রতিশ্রুতি আমরা পূরণ করব। আজও একটা আন্ডারপাসের উদ্বোধন হয়েছে। দ্রুত আন্ডারপাসের জন্য সেনাবাহিনীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সড়ক পরিবহন আইন পাসের পথে। কাজেই আমি বলব, অধৈর্যে হবেন না, অপেক্ষা করুন; সমাধান হবে,’— বলেন ওবায়দুল কাদের।

১৫ আগস্ট বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালন নিয়ে আওয়ামী লীগের এই সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমি একটা কথাই বলতে চাই। ১৫ আগস্ট জন্মদিন না পালন করে খালেদা জিয়ার জন্য বিএনপি দোয়া মাহফিল আযোজন করেছে। এর অর্থ কি এটা যে ১৫ আগস্ট বেগম জিয়ার ভুয়া জন্ম দিবস— সেটা মেনে নিয়ে ক্ষমা চেয়ে দুঃখপ্রকাশ করে এটা থেকে সরে আসছেন?’

তিনি বলেন, ‘ভুয়া জন্ম দিবস পালন থেকে এরা মোটেই সরছেন না। ১৫ আগস্ট যারা ভুয়া জন্ম দিবস পালন করে, বাংলাদেশে এই ছদ্মবেশী বিধ্বংসী দলের সঙ্গে আমাদের কর্ম-সম্পর্ক থাকার সুযোগ নেই। বেগম জিয়ার পাঁচটা জন্ম দিন। কোনটা সঠিক, সেটা বিএনপিকে আগে ক্লিয়ার করতে হবে। তারপর আমরা ভেবে দেখব তাদের সঙ্গে কথা বলা যায় কি না।’

বিএনপির আন্দোলনের ঘোষণা নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দিনক্ষণ দিয়ে ইতিহাসে কোনো দিন কোনো আন্দোলন হয়নি। বাংলাদেশেও হয়নি। দিনক্ষণ দিয়ে যে আন্দোলন হয় না, গত ৯ বছরে বিএনপির দিনক্ষণের আন্দোলনের ব্যর্থতাই তার বড় প্রমাণ।’

স্বাচিপের মহাসচিব ডা. ইকবাল আর্সেনালের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বিএসএমএমইউ উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক, স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. রোকেয়া, স্বাচিপের মহাসচিব ডা. মো. আবদুল আজিজসহ অন্যরা।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।