রিজেন্টের সঙ্গে চুক্তির বিষয়ে জানতাম না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী


Dhaka
Published: 2020-07-14 17:09:09 BdST | Updated: 2020-08-07 16:06:55 BdST

রিজেন্ট হাসপাতালের সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চুক্তির বিষয়ে কিছু জানতেন না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) দুপুরে সচিবালয়ে এক সাক্ষাতকারে তিনি এ কথা বলেন। তিনি জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের অনুরোধের প্রেক্ষিতে অন্য একটি সভা শেষে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে উদ্বৃত করে যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন সে বিষয়ে জবাব চাওয়া হয়েছে, জবাব পেলে বিষয়টি স্পষ্ট হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, কোন প্রতিষ্ঠানকে লাইসেন্স দেয়ার এখতিয়ার শুধু অধিদপ্তরের রয়েছে মন্ত্রণালয়ের এক্ষেত্রে কোনো দায়ভার নেই।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সারাদেশের হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার মনিটরিং করতে টাস্কফোর্স গঠন করা হচ্ছে, তারা লাইসেন্সিংসহ সকল অনিয়ম খতিয়ে দেখবে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে অধিদপ্তরের কোনো সমস্যা চলছে কি-না এমন প্রশ্নের উত্তরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “অধিদপ্তরের সাথে মন্ত্রণালয়ের কোনো সমস্যা নেই। দুটি'ই সরকারের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। দুটি প্রতিষ্ঠানই বর্তমানে কোভিড-১৯ এর দুর্যোগ মোকাবেলায় দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছে। জেকেজি ও রিজেন্ট হাসপাতালের সাম্প্রতিক কর্মকান্ডের ব্যাপারে ব্যাখ্যা দিতে মন্ত্রণালয় থেকে অধিদপ্তরকে চিঠি দেয়া হয়েছে। এটি সরকারের প্রশাসনিক ও দাপ্তরিক কাজের একটি অংশ মাত্র। মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের সমস্যার কোনো ব্যাপার এটি নয়।”

গত ২১ মার্চ স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের কক্ষে রিজেন্ট হাসপাতালের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়। এর মাধ্যমে রিজেন্ট হাসপাতালের দুটি শাখাকে (উত্তরা ও মিরপুর) কোভিড চিকিৎসার দায়িত্ব প্রদান করা হয়। এখন জানা যাচ্ছে, হাসপাতালটির এ বিষয়ে তেমন সক্ষমতা ছিল না। সেখানে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা না করেই দেওয়া হতো সনদ।