প্রেমে রাজি না হওয়ায় কলেজছাত্রীকে অপহরণ করলো ছাত্রলীগনেতা


রাজশাহী
Published: 2020-08-09 01:16:52 BdST | Updated: 2020-09-25 14:54:34 BdST

রাজশাহীর মোহনপুরে কলেজছাত্রী অপহরণের মামলায় ছাত্রলীগের নেতা ও তাঁর বাবাকে শনিবার দুপুরে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। এর আগে ভোরে ওই ছাত্রীকে উদ্ধারের পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান–স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়।

ছাত্রলীগ নেতার নাম আবদুর রাজ্জাক। তিনি মোহনপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি। তাঁর বাবার নাম ছলিমুদ্দিন (৫০)। বাড়ি উপজেলার ফুলশো গ্রামে। কলেজছাত্রীর ভাই তিনজনকে আসামি করে শুক্রবার মোহনপুর থানায় অপহরণের মামলা করেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তারা শুক্রবার রাত আটটার দিকে ছাত্রলীগ নেতা আবদুর রাজ্জাকের বাবা ছলিমুদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে। এরপর শনিবার ভোর রাতে রাজশাহী নগরের বালিয়াপুকুর এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় আবদুর রাজ্জাককে তাঁর মামার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই বাড়ি থেকেই উদ্ধার করা হয় কলেজছাত্রীকে।

মামলার এজাহারের অভিযোগ, ছাত্রলীগ নেতা আবদুর রাজ্জাক একই উপজেলার বাসিন্দা ওই কলেজছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। গত বৃহস্পতিবার সকাল সাতটার সময় আবদুর রাজ্জাক অন্য দুই আসামির সহযোগিতায় কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যান।

মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, শনিবার বেলা দুইটার দিকে আবদুর রাজ্জাক ও তাঁর বাবা ছলিমুদ্দিনকে কলেজছাত্রী অপহরণের মামলার আসামি হিসেবে আদালতে তোলা হয়। আদালত তাঁদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। চার দিন আগে ওই কলেজছাত্রীকে অপহরণ করা হয় উল্লেখ করে ওসি বলেন, স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তাঁকে হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে।