রাজশাহীতে গির্জায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ফাদার আটক


রাজশাহি
Published: 2020-09-30 14:08:37 BdST | Updated: 2020-10-24 15:03:30 BdST

রাজশাহীর তানোরে গির্জায় আটকে রেখে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগে ফাদার প্রদীপ গ্রেগরীকে (৪০) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে নগরীর বিশপ হাউজ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে তানোর থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

র‌্যাব-৫ এর রাজশাহীর কোম্পানি অধিনায়ক এটিএম মাইনুল ইসলাম জানান, ধর্ষণের খবর জানতে পারার পর থেকেই পলাতক প্রদীপ গ্রেগরীকে আটকের জন্য তারা প্রচেষ্টা শুরু করেন। পরে রাতেই তাকে বিশপ হাউজ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এরপর তাকে তানোর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার মুন্ডুমালা পৌর এলাকার সাধু জন মেরি ভিয়ান্নী গির্জা থেকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ফাদার প্রদীপ গ্রেগরীর বিরুদ্ধে তানোর থানায় রাতেই একটি ধর্ষণ মামলা হয়।

নির্যাতিতার স্বজনদের দাবি, গত শনিবার সকালে গির্জার পাশে মাঠে ঘাস কাটতে গিয়ে নিখোঁজ হয় ওই কিশোরী। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তাকে না পেয়ে রবিবার তানোর থানায় একটি জিডি করেন তারা। পরদিন (সোমবার) গির্জার ফাদার প্রদীপের ভবনের ছাদে ওই কিশোরীকে দেখতে পায় স্থানীয়রা।

বিষয়টি তখন রাজশাহীর জেলা ধর্ম প্রদেশের ইনচার্জকে মোবাইলে অবহিত করলে তিনজন প্রতিনিধি পাঠান তিনি। সোমবার গির্জায় একটি সালিশ বৈঠক বসানো হয়। সেখানে নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে আপসের নামে জিডি প্রত্যাহারের কথা বলা হয়।

পাশাপাশি কিশোরীর লেখাপড়া ও ভরণ-পোষণসহ বিয়ের আগ পর্যন্ত যাবতীয় খরচ বহন করার আশ্বাস দেওয়া হয়।
ওই কিশোরীকে আটকে রাখার খবর পেয়ে পুলিশ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গির্জা থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করে। এরপর থেকেই ফাদার প্রদীপ গ্রেগরী রাজশাহী নগরীর ওমরপুর, আমচত্তর এলাকার বিশপ হাউজে আশ্রয় নেন।

র‌্যাব জানায়, রাজশাহীর সিপিএসসি, মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল মঙ্গলবার দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর ওমরপুর, আমচত্তর এলাকার বিশপ হাউজ হতে ধর্ষণ মামলার এজাহারনামীয় আসামি প্রদীপ গ্রেগরীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রদীপ গ্রেগরী তানোর থানাধীন মুন্ডুমালা মাহালীপাড়া সাধুজন মেরী গির্জার ফাদার। তিনি নাটোরের বড়াইগ্রাম থানার ভবানীপুর এলাকার মৃত প্যাট্রিক গ্রেগরীর ছেলে।