শিক্ষা ব্যবস্থার কিছুটা পরিবর্তন প্রয়োজন: আরেফিন সিদ্দিক


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2018-03-12 04:14:31 BdST | Updated: 2018-12-15 11:55:54 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেছেন, আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার কিছুটা পরিবর্তন প্রয়োজন। জিপিএ-৫ পাওয়ার প্রতিযোগিতা আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। আমাদের মানবিক গুণাবলি অর্জন করা প্রয়োজন কিন্তু তা সঠিকভাবে হচ্ছে না।

রোববার (১১ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ননএমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তিতে প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস ও সর্বশেষ অগ্রগতি শীর্ষক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, আমরা কোন ধরনের ছেলে-মেয়ে তৈরি করছি সে বিষয়ে আমাদের লজ্জা লাগা উচিত। তারা অবলীলায় দুর্নীতিমূলক কাজের সাথে যুক্ত হয়ে যাচ্ছে। উন্নত দেশগুলোতে প্রাথমিক শিক্ষাব্যবস্থা অনেক বেশি উন্নত এবং প্রাথমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষকদের ব্যাপক মূল্যায়ন করা হয়। কেননা মূল কাজটি তারাই সম্পাদন করে। প্রধানমন্ত্রী এমপিওভুক্তির আশ্বাস প্রদান করেছেন। সে কাজ দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য আমাদের সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টার প্রয়োজন। আমলাতান্ত্রিক জটিলতার কারণে অনেক সময় এ সমস্যায় পড়তে হয় সেদিকে সচেতন থাকতে হবে।

সভায় বক্তারা বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জাভেদ আহম্মদ আমাদের জানিয়েছেন এমপিও বিষয়ক কমিটি অর্থ মন্ত্রণালয়ে ২ হাজার ১৮৪ কোটি টাকার প্রস্তাব পাঠিয়েছে। গ্রেডিং পদ্ধতি অনুসরণ করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিও করা হবে। এমপিও শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নুসরাত জাবিন বানু বলেছেন একটি নীতিমালা হচ্ছে, হয়ে গেলে দরখাস্ত আহ্বান করা হবে। বর্তমানে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে আগামী অর্থবছরের প্রাক্কলিত বাজেট তৈরির কাজ শুরু হয়েছে।

বক্তারা আরো বলেন, স্বীকৃতিই এমপিওপ্রাপ্তির একমাত্র মানদণ্ড বিবেচনা করা উচিত। এমপিও বিষয়ক কোন কমিটি গঠিত হলে এর অংশীদার হিসাবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় আমাদের সংগঠনের প্রতিনিধিত্ব দাবি করছি। তাহলে এমপিও নিয়ে আমরা এখনও যে ধোঁয়াশার ভেতর আছি তা কেটে যাবে।

২০১০ সালের দৃষ্টান্ত থেকে আমরা জানি, ওই বছর মে মাসে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির ঘোষণা আসে। এরপর তালিকা চুড়ান্ত করতে ৩ মাস সময় যায়। আমরাও মে মাসের ভেতরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট তালিকা চূড়ান্তকরণের দাবি জানাচ্ছি। যাতে সরকারের বর্তমান মেয়াদেই এমপিওভুক্তির কাজ সম্পন্ন হয়।

ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলারের সভাপতিত্বে সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন গবেষক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ, ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভূষণ, বেগম নূর আফরোজ আলী, বাসদ নেতা রাজেকুজ্জামান রতন প্রমুখ।

এসজে/ ১২ মার্চ ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।