জাল সনদে এমপিও করিয়ে ফেঁসে গেলেন প্রধান শিক্ষক


টাইমস ডেস্ক
Published: 2018-07-17 09:06:16 BdST | Updated: 2018-10-22 19:27:14 BdST

সহকারী শিক্ষকের এইচএসসি পরীক্ষার জাল সনদ দাখিল করে এমপিওভুক্ত করিয়েছেন প্রধান শিক্ষক। আর সে কারণে প্রধান শিক্ষকের এমপিও স্থগিতে নোটিশ করে ব্যাখ্যা চেয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। পাশাপাশি প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের উত্তোলিত অর্থের হিসাবও চাওয়া হয়েছে প্রধান শিক্ষকের কাছে।

সোমবার (১৬ জুলাই) সিরাজগঞ্জ জেলার চৌহালী উপজেলার আর.পি.এন শহীদ শাহজাহান কবির উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. রফিকুল ইসলামকে নোটিশ করে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়।

মাউশির সহকারী পরিচালক (সেসিপ) মো. সবুজ আলম স্বাক্ষরিত আদেশে জানা গেছে, সিরাজগঞ্জ জেলার চৌহালী উপজেলার আর.পি.এন শহীদ শাহজাহান কবির উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. রওশন আলী (ইনডেক্স নম্বর- ২৪১৪২২) এর সনদ যাচাইয়ের জন্য ঢাকা শিক্ষা বোর্ড ঢাকায় পাঠানো হয়। ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সনদ যাচাই করে রওশন আলীর ফলাফল ‘ফেক’ মন্তব্য করে মাউশিতে প্রতিবেদন পাঠায়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে মো. রওশন আলীকে সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিয়ে এমপিও দেওয়ায় কেন প্রধান শিক্ষকের এমপিও বন্ধ করা হবে না তা ব্যাখ্যাসহ জানতে চায় মাউশি। পাশাপাশি এমপিও খাত থেকে প্রধান শিক্ষক এবং সংশ্লিষ্ট সহকারী শিক্ষকের উত্তোলিত অর্থের হিসাবও চাওয়া হয়।

টিআর/ ১৭ জুলাই ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।