টানা ষষ্ঠবার চবির শিক্ষক নির্বাচনে ‘হলুদ দল’ জয়ী


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2018-04-25 22:56:07 BdST | Updated: 2018-10-19 07:36:12 BdST

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শিক্ষক সমিতি নির্বাচনে পূর্ণ প্যানেলে ১১টি পদে নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছে আওয়ামী ও বামপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন ‘হলুদ দল’।

এর ফলে ২০১৩ সাল থেকে টানা ষষ্ঠবারের মতো জয়ের ধারা অব্যাহত রাখলো আওয়ামী সরকার সমর্থিত বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল দলটি।

সভাপতি পদে ৩৬৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন হলুদ দলের প্রফেসর ড. আহমদ সালাউদ্দিন ও ৩০৬ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন একই দলের প্রফেসর ড. অলোক পাল।

বুধবার (২৫ এপ্রিল) সন্ধ্যায় সমাজবিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার প্রফেসর ড. এম. এ গফুর। এর আগে সকাল ৯টা থেকে বেলা দেড়টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে মোট ৮৫২ জন ভোটারের মধ্যে ৬৭২ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এর আগে ১৮ ও ২৩ এপ্রিল অনুষ্ঠিত অগ্রিম ভোট দেন ৯৯ জন ভোটার।

এ বছর তিনটি প্যানেলে নির্বাচনে মোট ৩৩ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নেন। এর মধ্যে বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দলে ভাঙনের ফলে বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের একাংশ ‘জাতীয়তা শিক্ষক ফোরাম’ নামে নতুন একটি প্যানেলে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী সভাপতি পদে বিজয়ী প্রার্থীর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে সাদা দলের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ শওকতুল মেহের ১৩১ ভোট ও জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরামের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আল-আমীন পেয়েছেন ১৪৩ ভোট।

অন্যদিকে, সাধারণ সম্পাদক পদে বিজয়ী প্রার্থীর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে সাদা দলের ড. মোহাম্মদ মোসলেম উদ্দিন ১০৬ ভোট ও জাতীয়তাবাদী ফোরামের প্রফেসর এস এম নছরুল কদির পেয়েছেন ২১৪ ভোট।

সহ-সভাপতি পদে ৩৭৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন হলুদ দলের প্রফেসর ড. রাশেদুন নবী। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাদা দলের প্রফেসর ড. ইসমত আরা হক ১২৯ ভোট ও জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরামের প্রফেসর মোহাম্মদ ড. তৈয়ব চৌধুরী পেয়েছেন ১২১ ভোট।

কোষাধ্যক্ষ পদে ৩৫২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন হলুদ দলের ড. তারিকুল হাসান চৌধুরী। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাদা দলের ড. এন এম সাজ্জাদুল হক সুমন ১১৫ ভোট ও জাতীয়তাবাদী ফোরামের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সালেহ জহুর পেয়েছেন ১৪৬ ভোট।

যুগ্ম সম্পাদক পদে ৩৮৮ ভোট পেয়ে হলুদ দলের মঞ্জুরুল আলম নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাদা দলের মোহাম্মদ শের মাহমুদ ১৪৫ ভোট ও জাতীয়তাবাদী ফোরামের ড. আবু নছর মুহাম্মদ আব্দুল মাবুদ পেয়েছেন ৮৫ ভোট।

এদিকে, সদস্য পদে ৪০৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন হলুদ দলের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ খাইরুল ইসলাম। একই পদে হলুদ দলের নির্বাচিতরা হলেন- ড. লায়লা খালেদা আঁখি (৩৮৫ ভোট), প্রফেসর ড. মু. গোলাম কবীর (৩৬৪ ভোট), মো. আবদুল্লাহ আল মামুন (৩৬০ ভোট), প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন (৩৫১ ভোট) ও প্রফেসর ড. মোহাম্মদ শফিউল আযম (২৯৬ ভোট)।

নির্বাচনে জয়লাভের বিষয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় হলুদ দলের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. সুলতান আহমেদ বলেন, আমরা জয়ের ব্যাপারে নিশ্চিত ছিলাম। আমাদের প্যানেল থেকে নির্বাচিত শিক্ষকরা সঠিক দায়িত্ব পালন করে আসছে বলেই হলুদ দলের ওপর আস্থা রেখেছে সাধারণ শিক্ষকরা।

টিআই/ ২৫ এপ্রিল ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।