এমপিওভুক্তির দাবিতে আমরণ অনশনে যাচ্ছেন শিক্ষকরা


টাইমস ডেস্ক
Published: 2018-06-24 19:10:53 BdST | Updated: 2018-12-12 19:18:46 BdST

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তির (সরকারি সুবিধাপ্রাপ্ত) দাবিতে এবার আমরণ অনশনে যাচ্ছেন ননএমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা।

সোমবার (২৪ জুন) সকাল ১০টা থেকে আমরণ অনশন শুরু করবেন আন্দোলনরত শিক্ষক কর্মচারীদের সংগঠন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক- কর্মচারী ফেডারেশনের সদস্যরা।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশ থেকে এ ঘোষণা দেন ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার।

আগের দফায় লাগাতার অনশন কর্মসূচি চলাকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে এমপিওভুক্তির আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল বলে উল্লেখ করেন গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার। তিনি বলেন, ‘এ জন্য আমরা আমাদের কর্মসূচি স্থগিত করেছি। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত এবার আমাদের আমরণ অনশন চলবে। আমরণ অনশনে যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতির জন্য শিক্ষামন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রী দায়ী থাকবেন।’

এ সময় সংগঠনের সব শিক্ষক-কর্মচারীর বাবা-মা, স্ত্রী-পুত্র, ভাই-বোন, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব, শিক্ষার্থী, শিক্ষাবিদ, সুশীল সমাজ, সংবাদকর্মীসহ দেশের আপামর জনসাধারণের কাছে দোয়া চান এই শিক্ষক। মৃত্যুর মুখোমুখি হলেও প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তির বাস্তবায়ন না নিয়ে রাজপথ ছাড়বেন না বলেও জানান তিনি।

সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভুষণ রায়সহ বিভিন্ন জেলার প্রতিনিধিরা।

এদিকে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সারা দেশে পাঁচ হাজার ২৪২টি স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে (স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, কারিগরি) কর্মরত প্রায় ৮০ হাজার শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্তির দাবিতে গত ৫ জানুয়ারি অনশন চলাকালীন প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে একান্ত সচিব মো. সাজ্জাদুল হাসান, শিক্ষাসচিব সোহরাব হোসাইনকে সঙ্গে নিয়ে উপস্থিত হন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সব নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার প্রতিশ্রুতি দেন।

তবে ২০১৮-২০১৯ প্রস্তাবিত বাজেটে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এমপিওভুক্তি বাস্তবায়নের জন্য সুনির্দিষ্ট কোনো অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়নি। খবরটি সারা দেশের নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে। শিক্ষকরা আহাজারি আর্তনাদে ও বিক্ষোভে ফেটে পড়েন, তাই পূর্বের ঘোষণা অনুযায়ী ১০ জুন পবিত্র রমজান মাসে সারা দেশ থেকে আগত শিক্ষকরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান গ্রহণ করেন। শিক্ষকরা পুলিশি বাধা, গ্রেপ্তার, বৃষ্টি বাদল, রোদ ও ভ্যাপসা গরম, রাতে মশার কামড় খেয়ে কুকুর-বিড়ালের মতো রাজপথের ফুটপাতে ১৩ দিন লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছেন। গত ২৩ জুন ১৪তম দিনে মুষল-ধারে বৃষ্টির মধ্যে প্রতীকী অনশন পালন করে আজ ১৫তম দিনে অবস্থান করছেন।

এমএন/ ২৪ জুন ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।