গরুর হাটে অশ্লীলতার অভিযোগে গণপিটুনি খেলেন ইউটিউবার সৌভিক (ভিডিও)


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-08-31 18:12:54 BdST | Updated: 2018-12-15 11:58:09 BdST

বাংলাদেশে বর্তমান সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে ও অনলাইনে উপার্জনের অন্যতম প্রথা হিসেবে ইউটিউব সবচেয়ে এগিয়ে। বর্তমানে ইউটিউবে বিভিন্ন ভিডিও কন্টেন্ট আপলোড করে তার ভিউ এর উপর ভিত্তি করে রয়েছে উপার্জনের সুযোগ। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে দেশের তরুণ সমাজের একটা অঙ্গশ ঝুকে পড়েছে প্র্যাংক ভিডিও বানানোর দিকে। এসব ভিডিওর অধিকাংশ হয় নিম্নমানের ও কুরুচিপূর্ণ। যদিও এসবের মাঝেই কিছু প্র্যাংক ভিডিও ও মজার মজার কন্টেন্ট আপলোড করে যারা জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তাদের মাঝে ইউটিউবার সৌভিক আহমেদ, আসিফ বিন আজাদ ও জাকি লাভ অন্যতম।

সম্প্রতি ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে বঙ্গ বিডির ইউটিউব চ্যানেলে 'দ্যা কুরবানি সং' নামে একটি গান মুক্তি দেয়া হয়। গানটিতে পারফর্ম করেছেন সৌভিক আহমেদ, আসিফ বিন আজাদ ও জাকি লাভ ও একটি মেয়ে মডেল। গানটির শ্যুটিং করতে সৌভিক তার টিম নিয়ে ঈদুল আযহার আগের দিন উত্তরা পনেরো নাম্বার সেক্টরের পশুর হাটে যায়। সেখানে তারা শ্যুটিং করার সময় সে এলাকার পশু ব্যাবসায়ী থেকে শুরু করে হাটের কর্তৃপক্ষও তাদের সাথে খুব সহযোগীতা করে।

কিন্তু বিপত্তি ঘটে তখনি যখন কোরবানির হাটে কুরুচিপূর্ণ পোশাক পড়ে ভিডিওর সেই মেয়েটি প্রবেশ করে শ্যুটিং করবার জন্য। হাটের একজন প্রত্যক্ষদর্শীর মতে মেয়েটি যে ড্রেস পড়ে এসেছিল তা কোরবানির পশুর হাটের মত স্থানে বেমানান। এবং সেখানে মেয়েটাকে দেখে জটলা পেকে যায় হাটের মাঝে। একটা সময় মেয়েটির উপস্থিতি নিয়ে হাটেরত কর্তৃপক্ষের একজনের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন সৌভিক। বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে হাটের একজন এসে সৌভিককে থাপ্পড় মারলে আসিফ বিন আজাদ এর প্রতিবাদ করেন। তারপরই উত্তেজিত হয়ে যায় গরুর হাটের বেপারী ও স্থানীয় লোকজন। এসমময় তারা সৌভিককে বাঁশ দিয়ে মারতে শুরু করে যার ভিডিও বর্তমানে ইন্টারনেটে ভাইরালের মত ছড়িয়ে পড়েছে। জানা গেছে, সৌভিক সেসময়ে হাটের লোকজনের সাথে বেশি চেচামেচি ও উত্তেজিত হবার জন্যই তার উপরে হাটের লোকজন চড়াও হয়। সৌভিককে যখন হাটে আক্রমন করা হয় তখন আসিফ বিন আজাদ ও জাকি লাভকে আশেপাশে দেখা যায়নি বলে জানা গেছে।

বিষয়টি নিয়ে সৌভিক আহমেদের সাথে যোগাযোগ করতে তার ব্যাবহৃত মুঠোফোনে কল করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

উত্তরার গরুর হাটে সৌভিক আহমেদের পিটুনির ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন-

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।