অভিনেতা ইরফান খান আর নেই


টাইমস ডেস্ক
Published: 2020-04-29 15:27:31 BdST | Updated: 2020-10-01 10:33:33 BdST

ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা ইরফান খান আর নেই। বুধবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে মুম্বাইয়ের এক হাসপাতালে তিনি মারা গেছেন।

এরআগে মঙ্গলবার অসুস্থ হয়ে মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন হাসপাতালে কোলোন ইনফেকশন নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন অভিনেতা ইরফান খান। গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় নেয়া হয় আইসিইউতে।

ব্রেনে টিউমার নিয়ে বেশ কয়েক বছর ধরে লড়াই করছিলেন ইরফান খান । সুস্থ হয়ে ‘আংরেজি মিডিয়াম’ ছবির মধ্যে দিয়ে কামব্যাকও করলেও আবারও অসুস্থ হয়ে ভর্তি হয়েছিলেন হাসপাতালে।

ইরফান ১৯৬৭ সালের ৭ই জানুয়ারি ভারতের জয়পুরে একটি মুসলিম সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ব্রিটিশ ভারতীয়, হলিউড এবং তেলেগু ছবিতে কাজ করেন। তিনি ২০১২ সালের মার্কিন চলচ্চিত্র অ্যামেজিং স্পাইডার ম্যান অভিনয় করে প্রশংসা অর্জন করেন। এছাড়া তিনি হলিউডের সিনেমা জুরাসিক ওয়ার্ল্ড এ দারুণ অভিনয় করেন।

যেসব হলিউড সিনেমায় অভিনয় করেন ইরফান খান

ভারতের কিছু অভিনেতা বলিউডের পাশাপাশি হলিউডে তাদের অবস্থান শক্তপোক্ত করে নিয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন হলেন অভিনেতা ইরফান খান। আজ দুপুরে সবাইকে ছেড়ে চলে যান অবিনশ্বর জগতে।

অভিনেতা ইরফান খান হলিউডে প্রথমে সাধারণ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। ‘নিউ ইয়র্ক আই লাভ ইউ’,‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড’, ‘এ মাইটি হার্ট’ মুভিগুলো তে তিনি সাধারণ চরিত্রে করেছিলেন। পরবর্তীতে ‘লাইফ অফ পাই সিনেমাতে তিনি লিড রোল করেন। ‘ইনফার্নো’ যেখানেও প্রশংসিত অভিনয় করেন। এছাড়া ২০১২ সালের মার্কিন চলচ্চিত্র অ্যামেজিং স্পাইডার ম্যান অভিনয় করে প্রশংসা অর্জন করেন।

এছাড়া স্লামডগ মিলিনিয়ার, জাঙ্গল বুক, দি নেমসেক সিনেমায়ও অভিনয় করেন তিনি।

প্রথম অভিনীত সিনেমায় এডিটিংয়ে বাদ যায় ইরফানের দৃশ্য!

মাত্র ৫৩ বছর বয়সে সবাইকে ছেড়ে ওপারে চলে গেলেন ভারতীয় অভিনেতা ইরফান খান। আজ দুপুরে মুম্বাইয়ের এক হাসপাতালে তিনি মার যান।

বড় হয়ে ইরফান খান প্রথমে ক্রিকেটার হওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। সেখানে ব্যর্থ হওয়ার পর ছোটখাট ব্যবসার চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হন। সিনেমাতে আসার আগে টিভি সিরিয়াল অভিনয় করেন তিনি। যদিও সে পথ চলা ছিলো না সুখকর।

জানা যায়, নিউ দিল্লির ন্যাশনাল স্কুল অব ড্রামাতে পড়াশোনার জন্য স্কলারশিপ পেয়ে সেখান থেকে ইরফান ড্রামাটিক আর্টসে ডিপ্লোমা করেন। ন্যাশনাল স্কুল অব ড্রামা থেকে পাশ করার পর ইরফান খান মুম্বাইয়ে চলে এলেন। এখানে এসে তিনি টেলিভিশন সিরিয়াল দিয়ে নিজের ক্যারিয়ার শুরু করলেন, যদিও প্রথমদিকে তাঁকে অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। তিনি প্রথমদিকে টিউশনি করিয়ে এবং মানুষের বাসায় এসি ঠিক করে দিতেন।

এরপর ১৯৮৮ সালে এসে তাঁর ক্যারিয়ারে নতুন দিকে মোড় নেয়া শুরু করে। ডিরেক্টর মিরা নায়ের তাঁকে তাঁর সিনেমা সালাম বোম্বেতে একটি অতিথি চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব করেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক বিষয় হল তার চরিত্রটি শেষ পর্যন্ত ফিল্মের এডিটিংয়ে বাদ চলে যায়। যদিও সালাম বোম্বে সিনেমাটি পরে ইন্ডিয়া থেকে অস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিল। সিনেমাটি ইন্ডিয়ার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও জিতেছিল। তবে সিনেমার এডিটিংয়ে তাঁর চরিত্র বাদ পড়লেও ইরফান খান থেমে থাকেন নি। যা আমরা সবাই জানি। ধন্যবাদ ইরফানকে, থেমে গেলে হয়তো আমরা হারাতাম এই মহান অভিনেতাকে।

এসএম/ ২৯ এপ্রিল ২০২০