স্বামী-সংসার দুটোই চাই, ডিভোর্স মানি না: অপু বিশ্বাস


বিনোদন টাইমস
Published: 2017-12-07 22:10:30 BdST | Updated: 2017-12-14 08:08:23 BdST

শাকিব খানের ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত মানেন না জানিয়ে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস বলেছেন, মামলা না করে তিনি স্বামী এবং সুংসার দুটোই চান।

অপু বিশ্বাস সাংবাদিকদের জানান, আমি স্বামী, সংসার দুটোই চাই। তাই যতক্ষণ পর্যন্ত সমঝোতার মাধ্যমে সমাধানের পথ থাকবে ততক্ষণ আইনের দ্বারস্থ হব না। এক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপও কামনা করেছেন এই অভিনেত্রী।

অপু বলেন, আজকে আমি অপু বিশ্বাস বাংলাদেশে একটা পরিচিত মুখ। আমার সাথে আমার ঘরে অবিচার হচ্ছে, তাহলে অন্য সাধারণ নারীরা, যারা অপু বিশ্বাস না, তাদের কী অবস্থা হচ্ছে ভাবুন একবার। এজন্যই আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাই।

অপু বিশ্বাস ধর্মান্তরিত হয়ে অপু বিশ্বাস থেকে অপু ইসলাম খান নাম ধারণ করেন। কিন্তু তারপরেও সবখানে কেন বিশ্বাস ব্যবহৃত হচ্ছে-শাকিবের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে অপু বলেন, আমার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, পাসপোর্ট থেকে শুরু করে সব জায়গায় ‘অপু বিশ্বাস’ নাম রয়ে গেছে। এসব বদলাতেতো সময়ের দরকার। শাকিব আমার সঙ্গে কথা সব ঠিক করলে এসব ক্ষেত্রে আর কোনো সমস্যা হবার কথা ছিল না।

এখন সব ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে শাকিব ও জয়কে নিয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করতে চাই।
তিনি বলেছেন, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সমস্যা হতেই পারে। তাই বলে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে সে আমাকে ডিভোর্স লেটার পাঠাবে তা ভাবতেও আমার ঘৃণা হচ্ছে। এই ঘৃণা থেকেই ডিভোর্স লেটারটি খুলে দেখার মানসিকতা আমি হারিয়ে ফেলেছি।

অপু বলেন, শাকিব এমন একটি ন্যক্কারজনক কাজ করবে স্বপ্নেও ভাবিনি। এটি নিয়ে আমি আমার আইনজীবীর কাছে যাব। আইনিভাবে যা হওয়ার তাই হবে।

এ নিয়ে ভারতের হায়দরাবাদে ‘নোলক’ ছবির শুটিংয়ে থাকা শাকিব খান বলেন, আমি কেন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি দেশের মানুষের কাছে তা এখন পরিষ্কার। যদি তার সঙ্গে স্বেচ্ছাচারিতা করতাম বা খেয়াল-খুশি মতো তাকে ডিভোর্স দিতে চাইতাম তাহলে অনেক আগেই তা করতাম। অপুর বিষয়ে যা করার তা করে ফেলেছি। এখন আর এ বিষয় নিয়ে কোনো কথা বলতে চাই না।

জেডএম/ ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।