কেমন ছাত্রী ছিলেন রানী মুখার্জি?


বিনোদন টাইমস 
Published: 2017-12-29 10:37:17 BdST | Updated: 2018-01-16 19:51:44 BdST

আগামী বছর মুক্তি পেতে চলেছে রানী মুখার্জি অভিনীত ‘হিচকি’ ছবিটি। এ ছবিতে তাঁকে দেখা যাবে এক শিক্ষিকার ভূমিকায়। রানী পর্দায় শিক্ষিকা হয়ে উঠতে অনুপ্রেরণা পেয়েছেন পর্দার বাইরে তাঁর স্কুলশিক্ষিকাদের থেকে। সেই সূত্রে রানী জানান তাঁর স্কুলের শিক্ষিকাদের কথা। ছাত্রী হিসেবে কেমন ছিলেন, সে কথাও উঠে আসে।

নায়িকা হিসেবে রানী অত্যন্ত পারফেকশনিস্ট, সে বিষয়ে সন্দেহ নেই। যেকোনো চরিত্রের গভীরে গিয়ে তার মতো হয়ে উঠতে চেষ্টা করেন এই বলিউড সুন্দরী। আবার তিনি তা প্রমাণ করলেন ‘হিচকি’ ছবির ক্ষেত্রে। জানা গেছে, এই ছবিতে রানী স্কুলশিক্ষিকা হয়ে উঠতে আবার ফিরে যান তাঁর ফেলে আসা স্কুলজীবনে। সেই ছোটবেলার শিক্ষিকারা আজ তাঁর প্রেরণাদায়ী। এই শিক্ষিকা দ্বারাই আজ রানীর জীবন এবং চিন্তাধারা প্রভাবিত। তাঁদের শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে আজ এই বলিউড অভিনেত্রী হয়ে উঠেছেন মনের দিক থেকেও রানি।

এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে রানী বলেন, ‘আমি জুহুর মানেকজি কুপার স্কুলে পড়াশোনা করেছি। সেখানে অনেক শিক্ষিকা ছিলেন, যাঁদের থেকে আমি প্রেরণা পেয়ে এসেছি। আমাদের ভূগোলের শিক্ষিকা মিসেস ভাকিল এত সুন্দর এবং স্বচ্ছতার সঙ্গে পড়াতেন যে বাড়িতে গিয়ে আর পড়ার প্রয়োজন হতো না। ইতিহাস ও সাহিত্যের শিক্ষিকা মিসেস দাদারকর ছিলেন দুর্দান্ত। তিনি ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে পড়ার বাইরেও সময় কাটাতেন। মিসেস দাদারকর এত সুন্দর করে “জুলিয়াস সিজার” পড়াতেন যে তা জীবন্ত হয়ে উঠত। মনে হতো আমাদের চোখের সামনে ঘটনাটি ঘটছে।’

নিচ থেকে দ্বিতীয় সারিতে একদম বাঁয়ের মেয়েটি রানী মুখার্জি

 

‘ব্ল্যাক’খ্যাত অভিনেত্রী রানী মুখার্জি স্মৃতির অতলে ডুবে গিয়ে আরও বলেন, ‘আমাদের স্কুলের শিক্ষকেরা বন্ধুর মতো ছিলেন। আমাদের সঙ্গে সাধারণভাবে মেলামেশা করতেন। আর কখনোই পড়াশোনা নিয়ে চাপ সৃষ্টি করতেন না। আমাদের স্কুলে কিছু সেরা পড়ুয়া ছিল। আমি তাদের মধ্যে একজন ছিলাম। আর কিছু অত্যন্ত সাধারণ মানের ছাত্রছাত্রী ছিল। তারা কোনোক্রমে পাস করত। কিন্তু শিক্ষিকারা কখনো আমাদের থেকে তাদের আলাদা করে দেখতেন না। আমাদের শিক্ষিকারা সব সময় নম্বরের পেছনে দৌড়াতে শেখাননি। বেশি বেশি মার্কস পাওয়ার জন্য সর্বদা তাঁরা চাপ সৃষ্টি করতেন না। আমরা পড়াশোনা করেছি হাসি-মজার মাধ্যমে। আর এই সবকিছু ‘হিচকি’ ছবিতে আমার চরিত্রের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলতে চেষ্টা করেছি।’ অভিনেত্রী এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমার মনে হয় স্কুল এমন একটা স্থান, যেখানে পড়ুয়ারা নিজেদের সবকিছু খোলাভাবে মেলে ধরতে পারে। নিজেদের প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে পারে। তারা এখানে ডানা মেলে উড়তে পারে। আর আমি মনে করি, শিশুদের এই সময়ে কোনো রকম বন্ধন ছাড়া উড়তে দেওয়া উচিত। আমি এসব কিছু শিখেছি আমার শিক্ষিকাদের থেকে। আজ আমি মানুষ হিসেবে যেভাবে গড়ে উঠেছি, এ কারণে তাঁদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। তাঁদের শিক্ষা আমার জন্য অত্যন্ত মূল্যবান। “হিচকি” ছবিতে আমার অভিনীত চরিত্র এই দর্শনে বিশ্বাসী।’

সিদ্ধার্থ পি মালহোত্রা পরিচালিত এবং মনীশ শর্মা প্রযোজিত ছবি ‘হিচকি’ আগামী বছর ২৩ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাবে।

টিআর/ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।