এক এক করে ৬ষ্ঠ বিসিএসে এসে সফল ঢাবির শাদাত


ঢাবি টাইমস
Published: 2020-06-30 23:54:56 BdST | Updated: 2020-08-09 11:19:01 BdST

বহুবার হতাশ হওয়ার পর এক এক করে ৬ষ্ঠ বিসিএসে এসে সফল হয়েছেন ঢাবির শাদাত। আজ মঙ্গলবার প্রকাশিত হয়েছে ৩৮ তম বিসিএস এর চূড়ান্ত ( মৌখিক) পরীক্ষার ফলাফল।এতে ২২০৪ জনকে সুপারিশ করা হয়েছে।

সদ্য ঘোষিত ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফলাফলে প্রশাসন ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন বাঁশখালীর সন্তান মোহাম্মদ সাদাত হোসেন ও নুর পেয়ারা বেগম নীলু। তারা দুজন স্বামী স্ত্রী, দুজনই বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের একই গ্রামের ৬ নং ওয়ার্ডের সন্তান। গত বছর তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন, তাদের এক সন্তান রয়েছে।

প্রশাসন ক্যাডারে মেধাতালিকায় ১২৩ তম মোহাম্মদ সাদাত হোসেন বাঁশখালী পল্লী উন্নয়ন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০৪ সালে এসএসসি, মহসিন কলেজ থেকে এইচএসসি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিষয়ে বিবিএ ও এমবিএ ডিগ্রী অর্জন করেন। ছাত্রজীবনে তিনি জিয়া হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ছিলেন। হলের প্রিয় মুখ হিসেবে বেশ যশ তার। টিভি রুম, রিডিং রুম মাতিয়ে রাখতেন।

তিনি ইসলামী ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন বর্তমান বিআরটিএ চট্টগ্রাম অঞ্চলের সহকারী পরিচালক হিসেবে কর্মরত আছেন।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন- আলহামদুলিল্লাহ্‌, আমার স্ত্রী ও আমি দুজনেই ৩৮ বিসিএস এ এডমিন ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হলাম,এটা আমার ৬ষ্ঠ তম বিসিএস ছিলো, সেই ৩৩ থেকে আমি স্বপ্নের পেছনে লেগেছিলাম, সকল শুভাকাঙ্ক্ষীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ভালবাসা। লেগে থাকলে আল্লাহ নিরাশ করেননা। শুকরিয়া।’

প্রশাসন ক্যাডারে মেধাতালিকায় ১৫ তম নুর পেয়ারা বেগম নীলু সাধনপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০৬ সালে এসএসসি, ওমরগনি এমইএস কলেজ থেকে এইচএসসি ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এপ্লাইড ফিজিক্স বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি বর্তমানে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকে কর্মরত আছেন।