ভারতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের নগ্ন করে চেক করা হলো কে ঋতুবর্তী


World
Published: 2019-04-29 12:59:04 BdST | Updated: 2019-09-19 07:04:10 BdST

ভারতের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের নগ্ন করে কে ঋতুবর্তী তা পরীক্ষা করা হয়েছে। ভারতের পাঞ্জাবের বাথিন্ডার তালওয়ান্ডি সাবোতে অবস্থিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আকাল ইউনিভার্সিটিতে ছাত্রীদের নগ্ন করে এভাবে পরীক্ষা করা হয়। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চারজন নারী কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া।

সংবাদমাধ্যমটির খবরে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ জনেরও বেশী ছাত্রী অবস্থান করেন ক্যাম্পাসের একটি হোস্টেলে। সম্প্রতি সেখানকার টয়লেটে কেউ একজন ফেলে আসেন ব্যবহৃত স্যানেটারি প্যাড। কে এ কাজ করেছেন-তা শনাক্ত করতে ওই হোস্টেলের রক্ষণাবেক্ষণকারীরা ছাত্রীদের নগ্ন করে চেক করে দেখেন কার ঋতুচক্র চলছে।

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বিক্ষোভ করেন প্রায় ৬০০-৭০০ শিক্ষার্থী। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কর্তৃপক্ষ দু’জন নারী রক্ষাণাবেক্ষণকারী ও দু’জন নারী নিরাপত্তারক্ষীকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে।


বিশ্ববিদ্যালয়টি ঘটনাটিকে প্রথমে একটি ‘ছোট ভুল’ বলে দায় এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ অব্যাহত থাকলে চারজন নারী কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করতে বাধ্য হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

গত বছর নভেম্বরে একই রকম ঘটনা ঘটে একটি স্কুলে। সেখানকার টয়লেটে স্যানিটারি প্যাড পাওয়ার পর শিক্ষিকারা প্রায় ১৫ জন ছাত্রীকে নগ্ন করে চেক করেছিলেন। এ ঘটনা ভারতের একটি গ্রামে ঘটেছিল। সেই একই ঘটনা এবার দেশটির একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটল।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।