জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়

সরকারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে সরকারপন্থী ছাত্র সংগঠন


JNU
Published: 2019-11-23 08:41:47 BdST | Updated: 2020-01-22 16:30:37 BdST

হস্টেল ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে উত্তাল হয়েছে দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়। সেখানে পড়ার সাধ্য অধিকাংশ পড়ুয়াদের নেই, এই অভিযোগ তুলে দীর্ঘ বেশকিছু দিন ধরে উত্তপ্ত বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। এই ঘটনায় প্রতিবাদীদের সঙ্গে সামিল হয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়াচ্ছে খোদ এবিভিপি! বিরলতম ঘটনার সাক্ষী থাকছে রাজধানী।

বিজেপির ছাত্র সংগঠন এবিভিপি বেনজিরভাবে বিজেপি সরকারের সমালোচনা করে কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি জানিয়েছে।

তাদের কথায়, তারা কোনও রাজনৈতিক দলের অধীনে কাজ করেন না, পড়ুয়াদের স্বার্থরক্ষার জন্য কাজ করেন। এইক্ষেত্রে শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে টালমাটাল অবস্থা তৈরি হচ্ছে, এর জন্য দায়ী কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিযাল। তাঁর পদত্যাগের দাবি করা হচ্ছে। এই মন্তব্য করার পাশাপাশি, কেন্দ্রীয় সরকারের নীতি নিয়েও ব্যাপক সমালোচনা করেছে এভিবিপি।

উল্লেখ্য, কেন্দ্র বিরোধী সকল দলের পাশাপাশি শিবসেনাও জেএনইউ-এর এই আন্দোলন সমর্থনের ইঙ্গিত দিয়েছে। শিবসেনা নেত্রী প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদিও টুইটের মাধ্যমে নিজের সমর্থনের হাত বাড়িয়ে দেন।

তিনি লেখেন, ‘গণতন্ত্রে বিক্ষোভ প্রদর্শন করাই যায়, যতক্ষণ সেটা শান্তিপূর্ণভাবে চলছে।’ তবে ফি বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত সঠিক না বেঠিক তা নিয়ে কোনও অবস্থান গ্রহণ করেননি প্রিয়াঙ্কা। সেটা তর্কের বিষয় বলে জানিয়েছেন। তবে সেনা মুখপাত্রের দাবি, ‘বিক্ষোভ বন্ধ করতে দিল্লি পুলিশ যেভাবে লাঠিচার্জ করেছে তাতে প্রমাণিত যে পুরো ব্যবস্থা পরিচালনা করতে তারা ব্যর্থ।’