সৌদিতে নারীদের জন্য চালু ডিজিটাল কলেজ


Dhaka
Published: 2020-09-19 21:24:02 BdST | Updated: 2020-10-28 14:46:38 BdST

প্রযুক্তিবিষয়ক কাজে সম্পৃক্ত করতে নারী শিক্ষার্থীদের জন্য প্রথমবারের মতো দুটি ডিজিটাল কলেজ চালু করেছে সৌদি আরব। গত বুধবার সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ ও বড় শহর জেদ্দায় নারীদের প্রযুক্তিবিষয়ক শিক্ষার প্রসারে কলেজ দুটির উদ্বোধন করেন দেশটির শিক্ষামন্ত্রী হামাদ বিন মোহাম্মদ আল শেখ। কলেজ দুটির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন টেকনিক্যাল অ্যান্ড ভোকেশনাল ট্রেনিং করপোরেশনের (টিভিটিসি) পরিচালক ড. আহমেদ ফুহাইদ।

শুধু নারীদের প্রযুক্তিবিষয়ক শিক্ষাদানের জন্য ডিজিটাল কলেজ স্থাপন সৌদি আরবে এই প্রথম। এখানের প্রযুক্তিবিষয়ক নানা বিষয়ে অনার্স ও ডিপ্লোমার ব্যবস্থা থাকবে।

নেটওয়ার্ক সিস্টেম ম্যানেজমেন্ট, মিডিয়া টেকনোলজি, সফটওয়্যার, স্মার্ট সিটি, রোবোটিকস টেকনোলজি, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, মেশিন লার্নিংসহ নানা বিষয় থাকবে কলেজ দুটিতে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হামাদ আল শেখ বলেন, সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ ও প্রিন্স মুহাম্মাদ বিন সালমান ক্ষমতায়ন ও সর্বোচ্চ সহায়তার মাধ্যমে নারীদের উন্নয়ন কর্মসূচির মূল ভিত্তি হিসেবে রাখতে চান। নারীদের কর্মসংস্থান, সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি ও মেধার মূল্যায়নের মাধ্যমে নারীর উন্নয়ন করা হবে।

এছাড়া সৌদি আরবের ভিশন টোয়েন্টি থার্টিতে জাতীয় অর্থনীতিতে নারীদের অংশগ্রহণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর এ উদ্দেশ্য পূরণে টিভিটিসি কাজ করে যাচ্ছে।

টিভিটিসির তত্ত্বাবধানে উদ্বোধন হওয়া দুটি ডিজিটাল কলেজে বিভিন্ন বিষয়ের বিশেষজ্ঞ শিক্ষকেরা পাঠদান করবেন। এতে চার হাজারেরও বেশি নারী শিক্ষার্থীরা শিক্ষাগ্রহণ করতে পারবেন।

ডিজিটাল শ্রমবাজারের চাহিদা পূরণে প্রযুক্তিজ্ঞানসম্পন্ন শিক্ষার্থীরা ব্যাপক অবদান রাখবেন বলে আশা করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, ক্রমেই নানামুখী সংস্কারের পথে এগিয়ে যাচ্ছে সৌদি। এবার নারী শিক্ষায় যুক্ত হলো ডিজিটাল কলেজ।

ইসলামি শাসনব্যবস্থার তেলনির্ভর অর্থনীতির দেশ সৌদি আরবে নারীদের জন্য অভিভাবকত্ব আইন প্রচলিত রয়েছে। এই আইন অনুযায়ী নারীদের ঘরের বাইরে বের হওয়াসহ অন্য কাজের আগে অভিভাবকের অনুমতির দরকার পড়ে। ২০১৭ সালে অর্থনৈতিক নির্ভরতা কমাতে সৌদি যুবরাজ এক সংস্কার পরিকল্পনা ঘোষণা করেন।

সংস্কারপ্রক্রিয়ার আওতায় এরই মধ্যে দেশটির নারীরা গাড়ি চালানো ও পুরুষ সঙ্গী ছাড়াই দেশের বাইরে ভ্রমণের অনুমতি পেয়েছেন। এরই ধারাবাহিকতায় সৌদি আরবে প্রথম কেবল নারীদের প্রযুক্তিবিষয়ক শিক্ষাদানের জন্য ডিজিটাল কলেজ স্থাপন করা হলো। তথ্যসূত্র: আরব নিউজ ও আল অ্যারাবিয়া