জনসাধারণের প্রতি জেএমআই এর দৃষ্টি আকর্ষণ


Dhaka
Published: 2020-04-20 12:37:59 BdST | Updated: 2021-01-20 15:05:46 BdST

জেএমআই (JMI) দেশের স্বাস্থ্যসেবা সহ মৌলিক চাহিদা পূরণের জন্য অপরিহার্য আমদানি বিকল্প, রপ্তানিযোগ্য পন্য ও সেবা উৎপাদনের একটি মানসম্পন্ন, নির্ভরশীল ও বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে এ প্রতিষ্ঠানটিতে ফার্মাসিস্ট, কেমিস্ট, মাইক্রোবায়োলজিস্ট, বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার সহ মোট ৭,০০০ জনেরও বেশি একদল চৌকশ পেশাদার কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রত্যক্ষভাবে কর্মরত আছেন। তাদের নিরন্তর প্রচেষ্টায়, কার্যকরী মান নিয়ন্ত্রণ, কৌশলগত ব্যবস্থাপনা, কর্পোরেট গভরনেন্স ইত্যাদি কর্মপদ্ধতি জেএমআই এর দৈনন্দিন ব্যবসায়িক সংস্কৃতির অংশ হওয়ার কারণে প্রতিষ্ঠানটি জাপান, দঃ কোরিয়া, তুরস্ক, চীন থেকে Foreign Direct Equity Investment (FDI) আনয়নের মাধ্যমে ১০টি যৌথ মূলধনী কোম্পানি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশে Technical Know How আনয়ন, মানব সম্পদ উন্নয়ন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির এক নজির বিহীন দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে।

মেডিক্যাল ডিভাইস উৎপাদনে দক্ষতা অর্জন স্বল্প মেয়াদে সম্ভব না। মূলতঃ এর জন্য দরকার ব্যাপক অভিজ্ঞতা ও পুঞ্জিভূত দক্ষতা। বিষয়টি মাথায় রেখে জেএমআই দক্ষ মানব সম্পদ উন্নয়নের মাধ্যমে দেশ ও বিদেশের স্বনামধন্য স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ও স্ব-স্ব ক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত পেশাদারগণের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ও পরামর্শক্রমে Auto Disable Syringes, Nerve Block Needle, Disposable Dental Syringe, Autoclave সহ অনেক মেডিক্যাল ডিভাইস উদ্ভাবন ও বাজারজাত করতে সক্ষম হয়েছে। অধিকন্তু, Catheter for Preventing Post-Partum Hemorrhage, Dialysis Solution Mixer Machine উদ্ভাবন পর্যায়ে আছে। ডিভাইস দুটি বাজারে আসলে প্রসূতি মৃত্যুহার এবং দেশে ডায়ালাইসিস চিকিৎসা ব্যয় কমবে। বাংলাদেশে মেডিক্যাল ডিভাইস উৎপাদন শিল্পে ধারাবাহিক অগ্রগতি ও উদ্ভাবনের অগ্রজ প্রতিষ্ঠান হিসেবে সম্প্রতি JMI “SUTURE” নামীয় Highly Technical একটি Clinic পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত শুরু করেছে যা দেশের স্বাস্থ্য সেবার ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব সাড়া ফেলেছে।

বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির উৎপাদিত মেডিক্যাল ডিভাইস ইউরোপ ও দক্ষিণ আমেরিকাসহ ৩১ টিরও বেশি দেশে নিয়মিত রপ্তানি করে দেশের কষ্টার্জিত বৈদেশিক মুদ্রা আনয়ন করে চলেছে। জেএমআই WHO, UNICEF, ICDDRB, Save the Children, EPI, Family Planning Directorate, CMSD, BSMMU, Dhaka Medical College Hospital সহ অনান্য সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল এবং দেশের শীর্ষস্থানীয় ঔষধ কোম্পানিসমূহে পণ্য সরবরাহ করে থাকে।

জেএমআই বিদ্যুৎ বিল, আয়কর ও মুশকসহ যাবতীয় শুল্ককরাদি নিয়মিত রাষ্ট্রীয় কোষাগারে প্রদান করে থাকে। প্রতিষ্ঠানটি ইতোপূর্বে সর্বচ্চ করদাতার সম্মাননাও অর্জন করেছে এবং এর প্রতিষ্ঠাতা ব্যবস্থাপনা পরিচালক বাংলাদেশ সরকারের শিল্পমন্ত্রণালয় কর্তৃক বৃহৎ শিল্প (উৎপাদন) খাতে ০২ বার সিআইপি মর্যাদা লাভ করেন।

বাংলাদেশে শিশুদের টিকাদান কর্মসূচির সফল বাস্তবায়নের স্বীকৃতি হিসেবে গ্লোবাল এলায়েন্স ফর ভ্যাকসিনেশান এন্ড ইমুনাইজেশান (GAVI) মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভ্যাকসিন হিরো সম্মাননায় ভূষিত করে। আমরা (জেএমআই) সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আমদানি বিকল্প হিসেবে দেশে Auto Disable Syringes (AD) উৎপাদন শুরু করে সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচিতে বিগত ১৩ বৎসর যাবত নিরবিচ্ছিন্নভাবে সরবরাহ করে আসছি যা বাংলাদেশকে একটি দুরূহ Challenge সম্ভব করতে সক্ষম হয়েছে।

এখানে বিশেষভাবে আরও উল্লেখ্য যে, বিগত নভেম্বর ২০১৯ মাসে গণচীনে করোনা ভাইরাস (COVID-19) এর প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের পক্ষ থেকে গণচীন সরকারকে আপৎকালীন সহায়তার জন্য সিএমএসডি এর মাধ্যমে জেএমআই থেকে সংগ্রহ করে ১০ লক্ষ পিস Gloves এবং Mask সহ ব্যক্তিগত সুরক্ষার জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় মেডিক্যাল ডিভাইস প্রদান করেন। বিষয়টির স্বীকৃতিস্বরূপ মহাপরিচালক-ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর, জেএমআই এর প্রতিষ্ঠাতা ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মোঃ আবদুর রাজ্জাক সিআইপি কে বিশেষ সম্মাননা পদকে ভূষিত করেন।

যেহেতু, জেএমআই কেন্দ্রীয় ঔষধাগারে নিয়মিত তাদের উৎপাদিত বিভিন্ন ধরনের মেডিক্যাল ডিভাইস বিপুল পরিমাণে সরবরাহ করে আসছে সেহেতু, সাম্প্রতিক সময়ে করোনা ভাইরাস (COVID-19) এর প্রাদুর্ভাবের কারনে এই সরবরাহের পরিমাণ বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং এই সংকটময় মুহূর্তে বিশ্বব্যাপী মাস্ক ও গ্লাভস সহ অন্যান্য ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রীর সংকট দেখা দিয়েছে। এমতাবস্থায়, জরুরি সরবরাহকালীন সময়ে ২০,৬০০ পিস ফেইস মাস্ক ভুলবশত জেএমআই স্টোরে প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্টের জন্য সংরক্ষিত N95 কার্টুনে সরবরাহ করা হয়। এ বিষয়টি প্রাথমিক পর্যায়ে কর্তৃপক্ষের নজরে আসে এবং কেন্দ্রীয় ঔষধাগার তাৎক্ষনিক মাস্কগুলো জেএমআইকে ফেরত দেয় এবং কেন এমন মোড়কে সাধারণ মাস্ক সরবরাহ করা হয়েছে তার ব্যাখ্যা জানতে চায়। আমরা জেএমআই তাৎক্ষনিক আমাদের ভুল স্বীকার করে নিয়ে যথাযথ ব্যাখ্যা প্রদান করার পর বিষয়টি এখানে সুরাহা ও ইতি ঘটে। সর্বোপরি এতে কেউ কোন প্রকার ক্ষতিগ্রস্থ না হওয়া সত্ত্বেও বিষয়টি নিয়ে একটি বিশেষ মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় অপ-প্রচার চালিয়ে আসছে যা দেশের এই আপৎকালীন সময়ে সম্পূর্ণরূপে অনাকাঙ্ক্ষিত ও অনভিপ্রেত। এরপরও যদি কেহ এই বিষয়ে অহেতুক চিন্তায় ভোগেন বা মনে কষ্ট পেয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আমরা জেএমআই গ্রুপের পক্ষ থেকে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।

আমার আশা করি, উপরোক্ত ব্যাখ্যার আলোকে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট সকলের নিকট পরিষ্কার হবে এবং হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার লক্ষে অহেতুক অপপ্রচার চালানো থেকে বিরত থাকবেন। এখানে বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, বর্তমানে দেশের এ সংকটময় প্রচণ্ড প্রতিকুল পরিস্থিতিতে চলাচলের অশুবিধাসহ অন্যান্য কারণে লোকবলের অভাবের মধ্যেও আমরা সরকারের নির্দেশনার আলোকে আমাদের লোকজনকে বহুকষ্টে দেশ ও জাতির স্বার্থে সার্বক্ষণিক ভাবে কাজে লাগিয়ে আসছি। এ বিষয়গুলো সংশ্লিষ্ট সকলের মানবিকভাবে বিবেচনার দাবি রাখে।

জেএমআই গ্রুপের পক্ষে,

আ.ফ.ম রিয়াজ উদ্দিন মানিক
গণসংযোগ কর্মকর্তা।