টেনিস বলে সর্বাঙ্গের ব্যথা কমে!


স্বাস্থ্য ডেস্ক:
Published: 2017-03-31 11:50:38 BdST | Updated: 2018-08-14 20:23:11 BdST

ডেইলিমেইলবিডি ডট কম:
ঢাকা: আপনার পিঠব্যথা, মাথাব্যথা ও ঘাড়ব্যথাসহ সারা শরীরে বিভিন্ন যন্ত্রণা কমিয়ে দেবে টেনিস বল! কি এটা শুনে অবাক লাগছে তাইতো? ভাবছেন এমনটা কখনো হয় নাকি?
 
বিষয়টা শুনতে একটু আজব লাগলেও বাস্তবেই কিন্তু টেনিস বলকে কাজে লাগিয়ে পিঠের ব্যথাসহ শরীরের নানা অংশের যন্ত্রণা কমানো সম্ভব?
 
এখন প্রশ্ন হলো কিভাবে?
 
তাহলে আসুন টেনিস বলের সাহায্যে বিশেষজ্ঞরা শরীরের কি কি ব্যথা কমার পরামর্শ দিয়েছেন তা জেনে নেয়া যাক;
 
নিম্নে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো:
 
পিঠের যন্ত্রণা:  ঠিক মতো না শোয়া অথবা হিল জুতো পরার কারণে আমাদের পিঠে ব্যথা হতে পারে। এরকম ব্যথা হলে দুটি টেনিস বলের প্রয়োজন পরবে। প্রথমে আপনি শুয়ে পড়ুন। তারপর বল দুটি পিটের নিচে রেখে দিন। টেইল বোনের ঠিক উপরে রাখবেন বল দুটি।এবার ধিরে ধিরে কয়েকবার উপরে এবং নিচে যেতে দিন। এমনটা করলে বল দুটি আপনার পিঠের অনেকটা অংশে ম্যাসাজ করতে থাকবে। টানা ৫ মিনিট এমন ম্যাসাজ করলে দেখবেন পিঠের ব্যথা একেবারে কমে গেছে।
 
ঘাড়ব্যথা: শুয়ে পরুন। তারপর একটা টেনিস বল ঠিক ঘাড়ের উপরের অংশে রেখে ধিরে ধিরে মাথার পেছনটা নাড়াতে থাকুন। এমনটা করলে বলটা আপনার ঘাড়ে চাপ দিতে থাকবে, আপনার মনে হবে কেউ যেন ম্যাসাজ করে দিচ্ছে। টানা তিন মিনিট এমনটা করুন ব্যথা কমে যাবে।
 
কাঁধের যন্ত্রণা: এক্ষেত্রে দুটি বল কাঁদের ঠিক নিচে রেখে শুয়ে পড়ুন। এবার উপরে-নিচে এবং ডান দিক-বাঁ দিকে ধীরে ধীরে সরতে থাকুন। এমনটা টানা ২ মিনিট করলে দেখবেন কষ্ট কমে যাবে। তবে উপর নিচ করার সময় শুধু কাঁধের উপর ভর দিয়ে শরীরটা নাড়াবেন। বাকি কোনো অংশকে কাজে লাগাবেন না।
 
কোমরব্যথা: দীর্ঘক্ষণ বসে কাজ করলে অথবা সব সময় জুতো পরলে, এমন যন্ত্রণা হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে প্রথমে শুয়ে পড়ুন হবে। তারপর দুটি বল হিপের নিচে রেখে টানা তিন মিনিট গোল গোল করে ঘোরালে দেখবেন কোমড়ের নিচের অংশে চাপ পরবে। ফলে ব্যথা কমতে শুরু করবে।
 
পায়ে যন্ত্রণা: একটা বলের উপর দাঁড়িয়ে বলটি আগে-পিছে করতে থাকুন। এমনটা ২ মিনিট করলে পায়ের যন্ত্রণা নিমেষে কমে যাবে।
 
হাতে ব্যথা: অনেকক্ষণ লেখার পর অনেকেরই হাতে খুব যন্ত্রণা হয় । এক্ষেত্রে একটা টেনিস বল টেবিলে রেখে তার উপর হাতটা রাখুন। তারপর আরেকটা টেনিস বল হাতের উপরে দিয়ে দিন। এবার টানা ২ মিনিট বলটা আগে-পিছে করার মাধ্যমে হাত ম্যাসাজ করুন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।