মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া সনদে ইবিতে ভর্তি, শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2018-04-29 15:06:05 BdST | Updated: 2018-08-15 19:24:23 BdST

মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া সনদ ব্যবহার করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ভর্তির অভিযোগে সালাউদ্দিন নামে এক শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

সালাউদ্দিন হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগে ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হন। তিনি জাল সনদ ব্যবহার করে ভর্তি হয়ে এক বছরেরও বেশি সময় ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিয়ে বর্তমানে দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যয়নরত। বিষয়টি জানার পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তদন্ত করে ঘটনার প্রমাণ পায়। পরে তার ভর্তি বাতিল করে।

শনিবার (২৮ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা থানার বড়দুধপাতিল গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে সালাউদ্দিন। তিনি কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার তালবাড়িয়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের মুক্তিযোদ্ধার সনদটিকে বাবার সনদ হিসেবে ব্যবহার করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হন। বিষয়টি জানতে পেরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক দেবাশীষ শর্মাকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সনদ ব্যবহারের বিষয়টি প্রমাণিত হয়। পরে শনিবার ওই শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের (ভারপ্রাপ্ত) রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ বলেন, সালাউদ্দিন মুক্তিযোদ্ধার সনদ জাল করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে। অভিযোগটি প্রমাণিত হওয়ায় কর্তৃপক্ষ ওই শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির সদস্য সচিব ও প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, তার অপরাধের শাস্তি শুধু ছাত্রত্ব বাতিল নয়। এরপরেও তার ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করাসহ তার এসএসসি ও এইচএসসির সনদ বাতিল করা উচিত বলে আমি মনে করি। আগামী সিন্ডিকেটে বিষয়টি যাতে রিপোর্ট করা হয় এ বিষয়ে প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলব। এসব বিষয়ে কঠোর শাস্তি না হলে অপরাধীরা ভবিষ্যতে উৎসাহী হবে।

এসএম/ ২৯ এপ্রিল ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।