দিয়াজ হত্যা: চবি শিক্ষক আনোয়ার রিমান্ডে


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2017-12-21 09:54:25 BdST | Updated: 2018-09-24 06:53:45 BdST

ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যা মামলার আসামি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি।

চট্টগ্রামের পঞ্চম সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিবলু কুমার দে বুধবার তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনের শুনানি করে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) সাহাবুদ্দিন আহমেদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হলে শুনানি শেষে আদালত দুই দিনের হেফাজত মঞ্জুর করেন।

“আদেশের পর আসামিকে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে তদন্তকারী সংস্থা (সিআইডি) রিমান্ডে নেবে।”

উচ্চ আদালত থেকে নেওয়া জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর গত সোমবার চট্টগ্রামের মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে আত্মসমর্পণ করেন শিক্ষক আনোয়ার হোসেন।

ওইদিন তার জামিন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন মুখ্য বিচারিক হাকিম মুন্সি মশিয়ার রহমান।

আদালতের ওই আদেশের পর ছাত্রলীগের একটি অংশ আনোয়ারের মুক্তির দাবিতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) মূল ফটকে তালা লাগিয়ে দেয়। গত মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ধর্মঘটও পালন করে ছাত্রলীগের ওই অংশটি।

২০১৬ সালের ২০ নভেম্বর রাতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দক্ষিণ ক্যাম্পাসে নিজের বাসা থেকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক দিয়াজের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ওই ঘটনায় গত বছরের ২৪ নভেম্বর আদালতে হত্যা মামলা করেন দিয়াজের মা জাহেদা আমিন চৌধুরী। তার আবেদনে গত ৭ অগাস্ট আদালত আসামিদের গ্রেপ্তার ও দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞারা জারি করে।

দিয়াজ হত্যা মামলার আসামিরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা জামশেদুল আলম চৌধুরী, সাবেক সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেন, ছাত্রলীগের বাতিল কমিটির সভাপতি আলমগীর টিপু, বাতিল কমিটির নেতা রাশেদুল আলম জিশান, আবু তোরাব পরশ, মনসুর আলম, আবদুল মালেক, মিজানুর রহমান, আরিফুল হক অপু ও মোহাম্মদ আরমান।

নিহত দিয়াজ এবং আসামিরা সবাই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের রাজনীতিতে নগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

এইচএম/ ২১ ডিসেম্বর ২০১৭

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।