কলকাতা বইমেলায় সোয়া কোটি টাকার বাংলাদেশের বই বিক্রি


Dhaka
Published: 2020-02-13 14:10:00 BdST | Updated: 2020-07-13 16:47:47 BdST

সম্প্রতি শেষ হওয়া কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলায় প্রায় এক কোটি ২০ লাখ টাকা মূল্যের বাংলাদেশের বই বিক্রি হয়েছে। মেলায় বাংলাদেশের প্যাভেলিয়নের স্টলগুলোতে এসব বই বিক্রি হয়।

কলকাতা উপ-হাইকমিশনের প্রথম সচিব (বাণিজ্যিক) মো. শামসুল আর্ফি এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের স্টলে এবার সব মিলিয়ে প্রায় এক কোটি রূপি মূল্যের বই বিক্রি হয়েছে, যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় এক কোটি ২০ লাখ টাকা।’

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের লেখকদের বই কলকাতাসহ পশ্চিমবঙ্গের পাঠকের কাছে যে কতটা জনপ্রিয় তা বই বিক্রির সংখ্যা দেখেই বুঝা যায়। মেলা শেষ হওয়ার আগেই অনেক বই শেষ হয়ে যায়। বিশেষ করে ‘বঙ্গবন্ধু জাদুঘরের স্টলে বঙ্গবন্ধুর লেখা ‘কারাগারের রোজ নামচা’, ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’, ‘আমার দেখা নয়া চীন’, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লেখা ‘শেখ মুজিব আমার পিতা’ বইগুলো বেশি বিক্রি হয়েছে।

এছাড়াও কলকাতার বুদ্ধিজীবীদের দৃষ্টিতে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, ইমদাদুল হক মিলনের ‘নেতা এক রাতে নিহত হলেন’, নিমর্লেন্দু গুণের ‘মহাজীবনের কাব্য’, ‘নতুন চর্যাপদ’, জীবনানন্দ দাশের কবিতাসমগ্র ও অধ্যাপক সিরাজুল সিরজুল ইসলাম চোধুরীর ‘সময় বহিয়া যায়’সহ আরও বেশ কিছু বই মেলা শেষ হওয়ার আগেই শেষ হয়ে যায়।

পাবলিশার্স অ্যান্ড বুকসেলস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক সুধাংশু শেখর দে কলকাতা বইমেলা কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে জানান, এবারের মেলায় ২৩ কোটি রুপিরও বেশি মূল্যের বই বিক্রি হয়েছে, যা গত বছরের চেয়ে ১১ শতাংশ বেশি।

গত ২৯ জানুয়ারি ১২ দিনব্যাপী কলকাতা আর্ন্তজাতিক বই মেলা শুরু হয়, যা শেষ হয় ৯ ফেব্রুয়ারি। -বাসস