গ্রন্থমেলায় ধুমিয়ে চলছে সুখন, সালমান ও মারজুক রাসেলের বই


Dhaka
Published: 2020-02-17 03:01:23 BdST | Updated: 2020-04-05 10:04:33 BdST

প্রায় ১৫ বছর পর এবারের বইমেলায় ‘দেহবণ্টনবিষয়ক দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষর’ শিরোনামে একটি কবিতার বই প্রকাশ করেছেন মারজুক রাসেল। যিনি একাধারে একজন গীতিকার ও অভিনেতা। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অর্জন করেছেন তুমুল জনপ্রিয় মারজুক রাসেল।

৭ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) বইমেলায় বইটির প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান বায়ান্ন’র স্টলে হাজির হন এই অভিনেতা। সন্ধ্যা ৬টার দিকে বইমেলায় মারজুক রাসেল প্রবেশ করার পর, বায়ান্ন’র স্টলের চারপাশ জুড়ে ভীড় পড়ে যায় বইটি কেনার জন্য। এসময় স্টলের চারপাশে দীর্ঘ লাইন ধরে বই কেনার দৃশ্যও লক্ষ্য করা দেখা যায়।

তবে মাসজুক রাসেল বই মেলায় প্রবেশ করার ১ ঘণ্টার মধ্যে স্টলে থাকা তার কবিতার বই শেষ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন বায়ান্ন প্রকাশনীর প্রকাশক নুরে আলম।

তিনি বলেন, ‘মারজুক ভাইয়ের বই প্রকাশের আগে থেকেই প্রচুর চাহিদা ছিল। মেলায় যেদিন মারজুক ভাই আসেন সেদিন আমাদের একটু ঝামেলা হয়ে যায়; উনার ভক্তদের উপচে পড়া ভীড় হয়। আজ উনি মেলায় আসার ১ ঘণ্টার মধ্যে আমাদের স্টলে থাকা সব বই শেষ হয়ে যায়। সে কারণে স্টালের সামনে একটু বেশি চাপ ছিলো। কাল থাকে আবারও বইটি পাওয়া যাবে স্টলে।’

এদিকে বইটি মারজুক রাসেলের ভাষায় ‘গ-নির্বাচিত কবিতার বই’। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন রাজীব দত্ত।

মারজুক রাসেলের প্রথম প্রকাশিত কাব্যের নাম ‘শান্টিং ছাড়া সংযোগ নিষিদ্ধ’। এরপর ‘চাঁদের বুড়ির বয়স যখন ষোলো’, ‘বাঈজি বাড়ি রোড’ এবং ‘ছোট্ট কোথায় টেনিস বল’ নামে তার তিনটি কবিতার বই প্রকাশিত হয়েছে।

সোলাইমান সুখন এর বই

বয়স ৩৫ এর কোঠা পার হলেও চলনে বলনে কথাবার্তায় এখনো তরুণ সোলাইমান সুখন। ফেসবুকে নানা ধরনের অনুপ্রেরণামূলক স্ট্যাটাস, ছবি ও ভিডিওর পোষ্ট করার কারণে এরইমধ্যেই তিনি তরুণদের কাছে জনপ্রিয়তার শীর্ষে। এবারের বইমেলায় তারই লেখা প্রথম বই প্রকাশ পেয়েছে। বইটির নাম 'মস্তিষ্কের ক্যানভাস'। অধ্যয়ন প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত বইটি মেলার ১৪ নম্বর প্যাভিলিয়নে পাওয়া যাচ্ছে।

এ বইটা গল্পের নয় কিংবা দর্শনেরও নয়। সাংঘর্ষিক অনুভূতির সংকলন বলা যেতে পারে। নাগরিক জীবনে প্রতিনিয়ত অনেক কিছু দেখেও না দেখার ভান করার বোকামি চতুরতার অসহায় বহিঃপ্রকাশ। কেউ অনুভূতি লুকিয়ে রাখে, কেউ চুপচাপ ব্যক্তিগত ডায়রিতে লিখে রাখে, কেউবা ইন্টারনেটে প্রকাশ করে সারা পৃথিবীকে জানিয়ে দিতে চায়। বইয়ের কোথাও কোনো ধারাবাহিকতা নেই, নেই কোনো পক্ষপাত।

একবার ঘামাক্ত রিক্সাচালকের মাথায় বয়ে চলা কষ্টের কথা বলা হয়েছে তো আরেকবার শিল্পাঞ্চলের জ্যামে নিজের বিশাল পাজেরো গাড়িতে বিরক্তি নিয়ে বসে থাকা শিল্পপতির মাথায় কি চিন্তা চলছে তা বোঝার চেষ্টা করা হয়েছে।

কখনো নারীর দৈনন্দিন সংগ্রামের কথা আবার কখনো ক্রিকেটে জিতার আনন্দ আর ফুটবলের হেরে যাওয়া নিয়ে আক্ষেপ করা হয়েছে। বাংলাদেশকে নিয়ে একবার অনেক আশাবাদী আবার পরেরবার হতাশার কথা বলা হয়েছে। সাধারণ বাংলাদেশি মস্তিষ্কে নিউরন সেলের বিক্রিয়াগুলোকে কালো হরফে আঁকার চেষ্টায় এই বই।

বইমেলায় এলো ইউটিউবার সালমান মুক্তাদির এর বই

বই লিখেছেন আলোচিত ইউটিউবার ও অভিনেতা সালমান মুক্তাদির। তার বইয়ের নাম ‘বিহাইন্ড দ্য সিন’। এবারের একু‌শে বইমেলায় বইটি মোড়ক উন্মোচন হবে।

বইমেলার ১৭ নম্বর প্যাভিলিয়নে পাওয়া যাবে বইটি। এছাড়া রকমারিডটকম থেকেও যে কেউ বইটি প্রি-অর্ডার করে পেতে পারেন। এটি প্রকাশ করছে অধ্যায়ন প্রকাশনী।

এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন সালমান। বই লেখা নিয়ে সালমান মুক্তাদির বলেন, মানুষের ভণ্ডামি, অযৌক্তিকতা, হিউম্যান সাইকোলজি আর মানুষের স্বভাব নি‌য়ে বইটি লেখা। এতে সাহিত্য বা গ্রামার বেইজড কিছু নেই।