এক মাদ্রাসা থেকেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েছে ৮৪ জন


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2017-09-28 15:48:09 BdST | Updated: 2018-10-21 15:17:50 BdST

২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে একটি মাদরাসা থেকেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৮৪ জন ছাত্র-ছাত্রী চান্স পেয়েছে। তামীরুল মিল্লাত কামিল মাদরাসা থেকে চান্স পাওয়া ৮৪ জনের মধ্যে ৭৯জন ছাত্র এবং ৫ জন ছাত্রী। এদের একজন খ ইউনিটে চতুর্থ হয়েছেন। 

মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা বলছেন, দেশের কোন কলেজ থেকেও এক বছরে এতো ছাত্র ঢাবিতে চান্স পেয়েছে কিনা আমাদের জানা নেই। এ থেকে প্রমাণ হয় মাদরাসায়ও অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী রয়েছে।

এ বছর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সকল বিষয়ে ভর্তি হতে পারবে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। 

২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম স্থান অধিকার করেছেন আব্দল্লাহ মজুমদার। এর আগে ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার ‘খ’ ও ‘ঘ’ ইউনিটে প্রথম স্থান অধিকার করে তারই বড় ভাই আব্দুর রহমান। সে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় মানবিক অনুষদে প্রথম স্থান অধিকার করেছিল। এখন ঢাবির আইন বিভাগে আব্দুর রহমান অধ্যয়নরত। তারা উভয়ে তামিরুল মিল্লাত কামিল মাদরাসার ছাত্র ছিলেন।

এছাড়া ২০১১-১২ সেশনে ঢাবির ঘ ইউনিটে চতুর্থ ও খ ইনিটে নবম হন মিল্লাতের ছাত্র নুর মোহাম্মদ। তিনি বর্তমানে ফিন্যান্স বিভাগে অধ্যয়নরত আছেন।

খ ইউনিটে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করা তাসনীম ইসলামও (দাখিল /এস এস সি) সম্পন্ন করেছেন ঢাকা ডেমরার দারুন্নাজাত মহিলা মাদ্রাসা থেকে, এছাড়া খ ইউনিট এর সেরা দশে মাদ্রাসা থেকে আসা একাধিক শিক্ষার্থী ঢাবিতে চান্স পেয়েছেন। ডেমরার দারুন্নাজাত মাদ্রাসা থেকে প্রায় ৫০ জন, চট্রগ্রাম জামেয়া আহমাদিয়া সুন্নীয়া আলিয়া থেকে ৩৫ জন, নরসিংদী জামেয়া কাসেমিয়া, ঝালকাঠি এন এস কামিল মাদ্রাসা সহ দেশের বিভিন্ন সেরা মাদ্রাসা থেকে কয়েক শতাধিক শিক্ষার্থী ঢাবিতে চান্স পেয়েছেন পিছিয়ে নেই মাদ্রাসার ছাত্রীরাও, ঢাবি খ ইউনিট ভর্তি পরীক্ষার সেরা ১০০ তে দেখা মিলেছে একাধিক মাদ্রাসার ছাত্রীদের, খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ২৫ তম স্থানের অধিকারী হাছিছা নাজিম নওশীন উচ্চ মাধ্যমিক বা আলিম সম্পন্ন করেছেন চট্রগ্রামের জামেয়া আহমাদিয়া সুন্নিয়া মহিলা মাদ্রাসা থেকে।

এমএসএল/ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।