সাংবাদিকদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ড গঠন


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2018-01-29 18:29:53 BdST | Updated: 2018-10-23 14:37:21 BdST

সাংবাদিকদের বেতন কাঠামো নির্ধারণে নবম ওয়েজ বোর্ড (মজুরি বোর্ড) গঠন করেছে সরকার। ১৩ সদস্যের এই বোর্ডে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি মো. নিজামুল হককে চেয়ারম্যান করা হয়েছে।

এছাড়া সংবাদপত্র প্রতিষ্ঠানের মালিকপক্ষ এবং সাংবাদিক ও সংবাদপত্র কর্মচারী বা শ্রমিকদের প্রতিনিধিত্বকারী সমসংখ্যক প্রতিনিধিও রয়েছে ওয়েজ বোর্ডে।

বাংলাদেশ শ্রম আইন- ২০০৬ এর ১৪৩ ধারা অনুযায়ী এ বোর্ড গঠন করে রোববার তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে আদেশ জারি করা হয়েছে। ছয় মাসের মধ্যে সরকারের কাছে সুপারিশ দেবে বোর্ড।

সংবাদপত্র ও বার্তা সংস্থার কর্মীদের জন্য এই বোর্ড বেতন-ভাতা নির্ধারণ করবে। তবে ইলেকট্রনিক মিডিয়ার কর্মীদের বিষয়টি আইনগত পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সুপারিশ করবে বোর্ড।

এর আগে ২০১৩ সালের ১১ সেপ্টেম্বর সংবাদপত্র কর্মীদের বেতন-ভাতা ৭৫ শতাংশ বৃদ্ধি করে অষ্টম ওয়েজ বোর্ডের (অষ্টম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড রোয়েদাদ, ২০১৩) গেজেট প্রকাশ করে সরকার।

নবম ওয়েজ বোর্ডের সদস্যরা হলেন- নিউজ পেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের (নোয়াব) সভাপতি ও দৈনিক প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান, নোয়াবের সহ-সভাপতি এ কে আজাদ, নোয়াবের কোষাধ্যক্ষ ও দৈনিক মানবজমিনের প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, নোয়াবের সদস্য ও ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম, নোয়াবের সদস্য তাসমিমা হোসেন, বাংলাদেশ সংবাদপত্র পরিষদের আহ্বায়ক এম জি কিবরিয়া চৌধুরী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশ) সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশ) মহাসচিব ওমর ফারুক, বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি মতিউর রহমান তালুকদার, বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশনের মহাসচিব খাইরুল ইসলাম, বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজপেপার প্রেস ওয়ার্কার্সের সভাপতি আলমগীর হোসেন খান ও বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজপেপার প্রেস ওয়ার্কার্সের মহাসচিব কামালউদ্দিন।

নবম ওয়েজবোর্ড গঠন

 

তথ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব (প্রেস) নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ডের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন এবং তথ্য মন্ত্রণালয় নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ডকে সাচিবিক সহায়তা দেবে। মজুরি বোর্ডের কার্যপরিধিতে বলা হয়েছে, নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড অষ্টম সংবাদপত্র মুজরি বোর্ড রোয়েদাদ পর্যালোচনা করে সংবাদপত্র ও সংবাদ সংস্থায় নিয়োজিত সাংবাদিক, প্রেস শ্রমিক ও সাধারণ কর্মচারীদের জন্য বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা সম্পর্কে সুপারিশ করবে।

সুপারিশ প্রণয়নের সময় সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড সংবাদপত্রে বিদ্যমান আর্থিক অবস্থা ও সক্ষমতা, জীবনযাত্রার ব্যয়, সরকার, কর্পোরেশন এবং ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের সমতুল্য চাকরির মজুরির বিরাজমান হার, দেশের বিভিন্ন অঞ্চল/এলাকার সংবাদ শিল্পের বিদ্যমান অবস্থা এবং বোর্ডের বিবেচনায় প্রাসঙ্গিক অন্যান্য অবস্থা বিবেচনা করে দেখবে বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, প্রস্তাবিত ওয়েজ বোর্ড প্রয়োজনে অন্তর্বর্তীকালীন সময়ে সংবাদপত্র কর্মচারীদের মহার্ঘভাতা দেয়ার বিষয়টি বিবেচনা করে সরকারের কাছে সুনির্দিষ্ট সুপারিশ দেবে।

প্রস্তাবিত ওয়েজ বোর্ড প্রয়োজনে অন্তর্বর্তী সময়ের জন্য সংবাদপত্র কর্মচারীদের মাহার্ঘভাতা দেয়ার বিষয়টি বিবেচনা করে সরকারের কাছে সুনির্দিষ্ট সুপারিশ পেশ করতে পারবে বলেও বোর্ড গঠনের আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে।

টিআই/ ২৯ জানুয়ারি ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।