দাবি না মানলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি মেডিকেল শিক্ষার্থীদের


Dhaka
Published: 2020-11-05 14:10:26 BdST | Updated: 2020-11-27 08:02:06 BdST

চার দাবি না মানলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা। আর দাবি মানার জন্য ৮ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছেন তারা।

বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের ডিন শাকিল আহমেদের সঙ্গে দেখা করার পর সাংবাদিকদের এ কথা জানান আন্দোলনকারীরা।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে প্রফ পরীক্ষা না নেওয়া, সেশনজট নিরসন করে যথাসময়ে কোর্স সম্পন্ন করার ব্যবস্থা, বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ৬০ মাসের বেশি বেতন না নেওয়া ও মহামারীর সময় পরীক্ষা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হলে দায়ভার কর্তৃপক্ষকে নেওয়ায় দাবি জানিয়ে আসছেন তারা।

প্ল্যাটফর্ম অব মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল সোসাইটির ব্যানারে এ আন্দোলন চালিয়ে আসছেন তারা।

বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের ডিনের সঙ্গে দেখা করতে যান প্রায় ৫০ জন শিক্ষার্থী।

সেখান থেকে ফিরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তারা।

তারা জানান, ডিন তাদের আশাব্যঞ্জক কোনো কথা বলেননি।

শিক্ষার্থীদের পক্ষে একটি সরকারি মেডিকেল কলেজের একজন শিক্ষার্থী বক্তব্য রাখেন। তবে কোনো শিক্ষার্থীর নাম পরিচয় প্রকাশ না করতে অনুরোধ জানান আন্দোলনকারীরা।

ওই শিক্ষার্থী বলেন, ৮ নভেম্বর পরীক্ষার বিষয়ে একটি নোটিস দেওয়ার কথা রয়েছে। সেদিন শিক্ষার্থীদের কর্মসূচিও রয়েছে। নোটিসে দাবি মানার বিষয়ে কিছু না থাকলে পরবর্তী আন্দোলনের কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

“৮ তারিখ আমাদের বৈঠক আছে। সেখানে আমাদের চারটি দাবির একটি দাবিও যদি পুরো অথবা আংশিক অসম্পূর্ণ থাকে তাহলে আমরা কঠোর আন্দোলনে যাব। একই সঙ্গে আমাদের একটি লিখিত নোটিস দিতে হবে।”

ওইদিন ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে শিক্ষার্থীদের বৈঠকে যোগ দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

ওই শিক্ষার্থী বলেন, ৮ নভেম্বরের কর্মসূচির সময় এবং স্থান পরে জানিয়ে দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং তাদের শিক্ষকরা দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।

“স্যারদের প্রতি আমাদের আস্থা রয়েছে। এ কারণে আমরা এখনই কঠোর কোনো কর্মসূচি দিচ্ছি না‌। কিন্তু ৮ নভেম্বরের মধ্যে দাবি মানা না হলে কঠোর কর্মসূচিতে যাব।”