১৫ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ইফতার মাহফিল


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2017-06-17 12:55:10 BdST | Updated: 2018-11-17 11:43:07 BdST

সারাদেশের ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষার্থীদের সংগঠন ফার্মাসিস্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশে। ২০১৫ সালে শুরু হলেও দেড় বছরের মাথায় অনেকটাই এই বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের প্রাণের সংগঠন হয়ে দাঁড়িয়েছে। সারা বছর নানা ধরণের সামাজিক কার্যকলাপের পাশাপাশি এবারে বড় পরিসরে ইফতার আয়োজন করে। ভিন্নধর্মী ইফতার আয়োজন হলেও প্রত্যকে নিজ নিজ সাধ্যমত ইফাতার আয়জনে সার্বিক সহযোগিতা করেন।

ইফতার মাহফিলে গুণী ব্যক্তিদের অংশগ্রহণ পুরো সমাগমটিকে অন্যরূপ দিয়েছিল। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর আ ব ম ফারুক এর অনুপ্রেরণামূলক বক্তৃতায় সকল শিক্ষার্থীদের মনে নতুন আগ্রহ তৈরি হয় ফার্মাসিস্ট হওয়ায়।

এসকেএফ হতে আগত সোয়েব উল ইসলাম, প্রাইমএশিয়া থেকে উপস্থিত শিক্ষক প্রতিনিধি অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর তসলিমা বেগমের অংশগ্রহণে সকল বিশ্ববিদ্যালয়য়ে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান এসএম মোয়াজ্জেম, ব্র্যাক ইউনিভার্সটির সিনিয়র লেকচার সামিউল ইসলাম রাজিব একই বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকচারের কাউসার শরিফ সিয়াম, লেকচারের আশিস কুমার, লেকচারের ইমন রাহমানের উপস্থিতিতে এই সংগঠনে ফার্মাসি বিভাগের শিক্ষকদের ঐক্যমত প্রকাশ পায়। সাভার থেকে আসা গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, লেকচারার মনির হোসাইনের সাবলীল অংশগ্রহণ আয়োজকদের প্রেরণা যুগিয়েছে বলে অনেকে জানান।

খুব অল্প পরিসরে, মাত্র সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী নিয়ে ২০১৫ সালের ১০ই অক্টোবর যাত্রা শুরু করে পোয়াব। খুব অল্প সময়ের মাঝে ফার্মাসিস্টদের জন্যে অনন্য এক মঞ্চ হয়ে উঠে এই সংগঠন । ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের এক মঞ্চে নিয়ে আসে। ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায়.২৪০ জন ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত হয়। দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজিত ইফতার মাহফিলে নর্থ সাউথ, ইস্ট ওয়েস্ট, স্ট্যামফোর্ড, ব্র্যাক, স্টেট, চিটাগাং, প্রাইমএশিয়া, গণ বিশ্ববিদ্যালয় , ড্যাফোডিলসহ মোট ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এবং সদ্য পাশ করা ছাত্র-ছাত্রীরা অত্যন্ত আগ্রহের সাথে এই ইফতার যোগ দেয়। অনেকের সাথে কথা বলে জান যায়, তারা এই আয়োজনে অনেক খুশি এবং সবার সাথে পরিচিত হবার সুযোগ করে দেবার জন্যে তারা ধন্য। তারা এই মঞ্চে সবার সাথে মিলিয়ে কাজ করতে চায়।

প্রথমেই কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়, তারপরেই পোয়াব এর প্রাণ কার্যকরি পরিষদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। সভাপতি মোয়াজ্জেল হোসেন শাকিল সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন,'নিজেদের স্বার্থেই ফার্মাসিস্টদের এক হউয়া চাই। আর পোয়াব হচ্ছে সেই মঞ্চ যেখানে সকল ফার্মাসিস্ট এক কাতারে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মিলিয়ে লক্ষ্য অর্জনের লড়াই করবে সাথে সমাজের উন্নয়নেও কাজ করবে' তিনি আরও বলেন এখানে যারা আসছে তারা সবাই একটা নিদিষ্ট পরিমান টাকা দিয়ে অংশগ্রহণ করেছে।নাহলে এতো বড় ইফতার আয়োজন সম্ভব হতো না। আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ , আসলে সবাই এই সংগঠনকে ভালবাসে বলে উপস্থিত হয়েছেন। সবার কাছে সহযোগিতা চেয়ে সভাপতি তার কথা শেষ করেন।

এরপরেই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান পোয়াবের সকল কাজকে সাধুবাদ জানিয়ে কিছু মূল্যবান কথা বলেন। প্রাইমএশিয়ার শিক্ষিকা তাসলিমা বেগম ড্রাগের বিশেষ করে এন্টিবায়োটিক এর মিসইউজ নিয়ে সতর্ক থাকার কথা গুরুত্ব সহকারে বলেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর আ ব ম ফারুক বলেন ‘যেকোন কাজকে আন্তরিকভাবে করতে হবে। অনেক কস্ট করে রেজিস্ট্রেসন করতে হয় , এই বছর ১২হাজার ফার্মাসিস্ট রেজিস্ট্রেশন পেয়েছেন । ১০০ মডেল ফার্মেসি চালু করা হয়েছে এবং সামনে আরো ৫০০ করা হবে'।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এর ফার্মাসি বিভাগের চেয়ারম্যান এসএম মোয়াজ্জেম মোয়াজ্জেম বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন। সেখানে সকল ফার্মাসিস্টদের জন্যে দোয়া করা হয়। সামনের সময়ে আরও পরিসরে কাজ করার কথা জানান আয়োজক কমিটি ।

টিআই/ ১৭ জুন ২০১৭

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।