জাককানইবি উপাচার্য পেলেন কালান্তর ফাউন্ডেশন সম্মাননা


সরকার আব্দুল্লাহ তুহিন
Published: 2018-01-25 13:00:10 BdST | Updated: 2018-10-16 15:11:13 BdST

শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য কালান্তর ফাউন্ডেশন সম্মাননা পেয়েছেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাককানইবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. এ. এইচ. এম মোস্তাফিজুর রহমান।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে গুলশানের একটি মিলনায়তানে কালান্তর ফাউন্ডেশনের ৪র্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুণীজন সম্মাননা অনুষ্ঠানে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

ফাউন্ডেশনটি ৮টি বিভাগে সম্মাননা দিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে শিক্ষা, সংস্কৃতি, সাহিত্য, সংগীত, মুক্তিযুদ্ধ, তথ্য-প্রযুক্তি, নারী উদ্যোক্তা এবং সাংবাদিকতা।

উপাচার্য প্রফেসর ড. এ. এইচ. এম মোস্তাফিজুর রহমান সহসংস্কৃতিতে কামাল লোহানি, সাহিত্যে ইমদাদুল হক মিলন, সংগীতে আহম্মেদ ইমতিয়াজ বুলবুলকে সংগঠনটি সম্মাননা প্রদান করে।

‘নতুন প্রজন্মকে জানাতে হবে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস” শিরোনামে সম্মাননা অনুষ্ঠানের শুরুতে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক যুগ্ম সচিব সমর চন্দ পাল এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরকারের শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের প্রতিমন্ত্রি কাজী কেরামত আলী (এমপি)।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ. এইচ. এম মোস্তাফিজুর রহমান, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ এবং ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের চেয়ারম্যান লায়ন এম. কে. বাশার।

কালান্তর ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে উপাচার্য তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশে দু’টিপক্ষ রয়েছে, একটি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের অপরটি বিপক্ষের। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা শুধুমাত্র মুখে মুখে না বলে আমাদেরকে মনে-প্রাণে তা ধারণ করতে হবে”। সভা শেষে মনোজ্ঞ সংগীত ও নৃত্য পরিবেশিত হয়।

এমএন/ ২৫ জানুয়ারি ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।