উপাচার্যের আশ্বাসে অনশন ভাঙলেন শান্তা


সরকার আব্দুল্লাহ তুহিন
Published: 2018-03-04 18:26:03 BdST | Updated: 2018-06-20 12:03:41 BdST

আগামী ১৫ মার্চের মধ্যে তদন্ত কমিটির ফলাফল প্রকাশ করে সুষ্ঠু বিচার সম্পন্ন করা হবে- উপাচার্যের এমন আশ্বাসে অনশন ভাঙলেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী আসমাউল হোসনা শান্তা।

রোববার (৪ মার্চ) বেলা আড়াইটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ.এইচ.এম. মোস্তাফিজুর রহমান আশ্বাস দিলে শারীরিক নিপীড়ন এবং তদন্ত প্রতিবেদনের ধীরগতির প্রতিবাদে নেয়া অনশন ভাঙেন শান্তা। উপাচার্য তাঁর নিজ কক্ষে কোমল পানীয় খাইয়ে শান্তার অনশন ভাঙ্গান। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরসহ বিভিন্ন বিভাগের বেশকয়েকজন শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।

এসময় সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে সময় চেয়ে উপাচার্য প্রফেসর ড. এ.এইচ.এম. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, নিপীড়নের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমানিত হলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে ফোকলোর বিভাগের শতাধিক শিক্ষার্থী সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ভবন থেকে একটি প্রতিবাদ মিছিল বের করে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রশাসনিক ভবনের নিচে অবস্থান নেয়। তারা অভিযুক্তের শাস্তির দাবীতে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে।

প্রশাসনিক ভবনের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের কয়েক দফায় শান্ত করতে এসে ব্যর্থ হোন প্রক্টরিয়াল বডির শিক্ষকগণ, তদন্ত কমিটির সদস্যরা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। দু’ঘন্টার অবস্থানের পর শিক্ষার্থীদের একটি প্রতিনিধি দল উপাচার্যের সাথে দেখা করে তাঁর আশ্বাসে অনশন ও অবস্থান কর্মসূচি প্রত্যাহার করে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি (সোমবার) অর্থনীতি বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী আজিজুল হক শামীম ফোকলোর বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী আসমাউল হোসনা শান্তাকে থাপ্পড় মারার ঘটনাকে কেন্দ্র করে অভিযোগকারীর (শান্তা) আবেদন এবং শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের প্রেক্ষিতে চার সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠিত হয়।

বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এবং ছাত্র পরামর্শ পরিচালক অধ্যাপক ড. মোঃ সাহাবুদ্দিনকে প্রধান করে চার সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার কথা থাকলেও উক্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিল না করে রেজিস্ট্রার দফতরে তিন সপ্তাহ সময় চেয়ে কিছু প্রস্তাবনা পেশ করে।

এসএম/ ০৪ মার্চ ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।