শিক্ষার্থীরা জনগণের টাকায় পড়ে, আপনারাও জনগণের টাকায় চলেন: নুর


Dhaka
Published: 2019-11-09 23:25:09 BdST | Updated: 2019-11-21 07:52:57 BdST

সারা দেশের মানুষ ঘূর্ণিঝড় নিয়ে দুশ্চিন্তায় তারপর ও একটি বিষয়ে না লিখে পারছি না, সরকারের পক্ষ থেকে এর অাগেও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কত টাকায় হলে থাকে, খাবার খায়, টিউশন ফি দেয় এসব নিয়ে তির্যক মন্তব্য করা হয়েছিল। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ভালো করেই জানে তারা জনগণের টাকায় পড়াশুনা করে। সেজন্য তারা জনগণের টাকার সদ্ব্যবহার করতে চেষ্টা করে। জনগণের টাকা যেন কোন নির্দিষ্ট গোষ্ঠী অসৎ ব্যবহার করতে না পারে, জনগণের শ্রমের টাকাটা যেন সঠিকভাবে ব্যবহার হয়, জনকল্যাণে ব্যবহৃত হয় সেজন্যই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী-শিক্ষকরা বিভিন্ন অন্যায়ের সময়ে প্রতিবাদ করে, সরকারি কিংবা প্রশাসনিক স্বৈরতন্ত্রকে ভেঙে দিয়ে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে।

কিন্তু অাপনারা? অাপনাদেরকে মনে করিয়ে দিতে চাই যে, শিক্ষার্থীরা তো জনগণের সামাণ্য কিছু অর্থ বিশ্ববিদ্যালয়ে খরচ করে অার অাপনাদের থাকা-খাওয়া,লন্ডন,সিঙ্গাপুরের চিকিৎসা, গাড়ির জ্বালানি, নিরাপত্তার বহর সবই সাধারণ জনগণের টাকায়।

জনগনের অাংশিক অর্থ ব্যবহারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের তো তাও পরবর্তী জীবনে জনগণের জন্য কাজ করার সুযোগ রয়েছে। অার করেও থাকে। কিন্তু অাপনারা একবার ক্ষমতা পেলেই তো নিজেদের দলের লোকদের চাকরি, জনগণের টাকা লুটপাট, অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্য জনগণের উপর নির্যাতন-নিপীড়নসহ সব ধরণের অমানবিক কাজই তো করেন! পারলে তো ক্ষমতায় থাকতে বিদেশীদের কাছে দেশটাও বেঁচে দেন।
তারপরেও একেকজন কোন মুখে এতো নীতি কথা শোনান?

সাধারণ জনগণকে অাপনাদের দলকানা নেতা-কর্মী, সমর্থকদের মতো এতো বোকা ভাইবেন না যে অাপনারা অাউল-ফাউল যা বলবেন সেটাতে তালি দিবে। একটা কথা মনে রাখবেন, দেশ ও ক্ষমতার মালিক জনগণ। অাপনাদেরকে ভোটের মাধ্যমে ৫ বছরের জন্য দেশ পরিচালনার দায়িত্ব দেয় মাত্র। যেখানে অাপনারা জনগণের সেবক ।

সুতরাং মালিকদের নিয়ে এভাবে তির্যক মন্তব্য, কটুক্তি ঠিক না। কারন, মালিক চাইলে যে কোন সময়ে অাপনাদেরকে দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দিতে পারে।

অার বর্তমানে যারা রাষ্ট্র পরিচালনায় অাছেন, অাপনাদের মনে রাখা উচিত জনগণ অাপনাদেরকে দায়িত্ব দেয় নি। অাপনারা অপ6শক্তির মাধ্যমে জোর করে দায়িত্ব নিয়ে অাছেন। যা যে কোন সময়ই তাসের ঘরের মতো বিলীন হয়ে যেতে পারে।
সুতরাং মালিকের অর্থাৎ জনগণের চাওয়ার সাথে থাকতে চেষ্টা করুন, মালিক (জনগণ) ক্ষেপে গেলেই কিন্তু বিপদ।

লেখক: ভিপি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র-সংসদ