মানতে হবে সময়ের বাধ্যবাধকতা


Dhaka
Published: 2020-10-13 19:57:19 BdST | Updated: 2020-10-22 06:35:22 BdST

সাবেক আইনমন্ত্রী ও সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ বলেছেন, ধর্ষণের বিচারে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হলে মামলা নিষ্পত্তিতে যে সময়ের বাধ্যবাধকতা দেওয়া হয়েছে, তা মানতে হবে। বিচার যত বিলম্বিত হবে, শাস্তিও তত কম হওয়ার আশঙ্কা থাকে। গতকাল এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

শফিক আহমেদ বলেন, দেশে যে হারে ধর্ষণের ঘটনা বেড়েছে, এতে এই সময়ে আইনের সংশোধনী এনে শাস্তি মৃত্যুদন্ড করা সরকারের খুব ভালো সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতেও যদি ধর্ষকরা সতর্ক হয়!

তিনি বলেন, তবে এ ক্ষেত্রে আইনে মামলা নিষ্পত্তির জন্য যে সময়সীমা দেওয়া আছে, তা অনুসরণ করেই বিচারটা শেষ করতে হবে। বিচারে দীর্ঘসূত্রতা হলে ন্যায়বিচার না পাওয়ার আশঙ্কা থাকে। ব্যারিস্টার শফিক বলেন, আসামিপক্ষ সব সময় টাইম পিটিশন (সময়ের আবেদন) দিয়ে বিচারটাকে বিলম্বিত করার চেষ্টা করে। তাই নির্ধারিত সময়ে মামলা নিষ্পত্তি করতে হলে বিচারকদের মুলতবি ছাড়া বিচারকাজ চালাতে হবে।

বিচার বিলম্বিত হলে একটা পর্যায়ে গিয়ে আর সাক্ষীদের খুঁজে পাওয়া যায় না। এ জন্য রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীদের আরও বেশি দায়িত্বশীল হতে হবে। তদন্তের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদেরও দ্রুতগতিতে মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে হবে।