পথশিশুদের সবচেয়ে বড় স্কুল বানাতে চান মাহতিম সাকিব


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-07-22 20:25:07 BdST | Updated: 2018-11-21 12:53:21 BdST

মার্কস অলরাউন্ডারে প্রথম রানার আপ। ইউটিউবে ‘এই মন তোমাকে দিলাম’ গেয়ে পেয়েছে প্রায় কোটির কাছাকাছি হিট। ঈদে প্রচারিত ‘বুকের বাঁ পাশে’ টেলিফিল্মের গানেও কণ্ঠ দিয়েছে। সাংবাদিকের মুখোমুখি আজ হাজির মাহতিম শাকিব

গানের শুরু?

মাহতিম : ২০০৬ সালে। স্কুলে যাওয়ার আগে থেকেই গান গাই। ১১ বছর ধরে শিখছি। তখন মিরপুরে থাকতাম। বাসা থেকে আমাকে ‘চক্রবাক’ নামে একটা মিউজিক্যাল একাডেমিতে ভর্তি করানো হয়। শুক্রবার বড় ভাইদের ছুটি থাকায় বড় ক্রিকেট ম্যাচের আয়োজন করা হতো। কিন্তু আমি থাকতে পারতাম না। আমি গানের স্কুলে। ব্যাপারটা তখন বিদঘুটে লাগত। মনে হতো কেন আমি এখানে, কেন আমি খেলার মাঠে না!

ইউটিউবে কেন?

মাহতিম : গান-বাজনা করা ছাড়া তো আর কোনো বাড়তি যোগ্যতা নেই। তাই গান নিয়ে কিছু একটা করতে চাইলাম। এ জন্যই ইউটিউবে গান আপলোড করা।

একদিন দারুণ একটা গান আপলোড দিয়ে দেখলে একটা হিটও পড়ছে না। কেমন লাগবে?

মাহতিম : ইউটিউবের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে মামলা করার চিন্তা করব।

ভক্তরা কেমন সাড়া দিচ্ছে?

মাহতিম : রাস্তাঘাটে দেখা হলে ‘একটা সেলফি ভাইয়া!’ শুনতে হয়। একবার হেডফোন কিনতে যাচ্ছিলাম। হুট করে একটা মেয়ে সামনে এসে বলল—ওমা! মাহতিম শাকিব, আআআ.....! ওটা বেশ উপভোগ করেছি।

গান ছাড়া আর কী করো? বড় কিছুর স্বপ্ন আছে?

মাহতিম : কম্পিউটার কোডিং করি। ছবি আঁকি। আমার পরিবারের পাঁচ সদস্য ক্যান্সারে মারা গেছেন। রোগটার প্রতি ক্ষোভ আছে। হাসপাতালে গরিবদের দেখেছি, তাদের কষ্ট দেখেছি। তাই আমার স্বপ্ন একটা হাসপাতাল বানাব, যেখানে দরিদ্ররা স্বল্প ব্যয়ে চিকিত্সা পাবে। এ ছাড়া পথশিশুদের জন্য আমার ছোটখাটো একটা স্কুল আছে। আমরা চার-পাঁচ বন্ধু মিলে চন্দ্রিমা উদ্যানে কয়েকটি বাচ্চাকে পড়াই। আরেকটা স্বপ্ন হলো দেশের পথশিশুদের জন্য সবচেয়ে স্কুলটা আমিই বানাব।

কোনো কারণে প্রচণ্ড মেজাজ গরম, এক ভক্ত এসে চেপে ধরল, গান শোনাতেই হবে। কোনটা গাইবে?

মাহতিম : প্রথমত রাস্তাঘাটে যখন থাকি, কানে হেডফোন থাকে। ওই সময় মেজাজ গরম হওয়ার সুযোগ থাকে না। যদি গরম হয়েই যায় তাহলে—রঞ্জনা আমি আর আসব না শুনিয়ে দেব।

কেউ তোমার গান শুনছে না, সবাই স্মার্টফোন নিয়ে ব্যস্ত। কী করবে?

মাহতিম : এরকম ঘটলে কী আর করা, গান বাদ দিয়ে তাদের সঙ্গে আমিও স্মার্টফোন হাতে বসে পড়ব।

প্রিয় শিল্পী কারা?

মাহতিম : পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী, অরিজিৎ সিং। যাদের নাম বলছি না তারা হয়তো রাতের বেলা এসে আমাকে বদদোয়া দেবে। বলবে ‘ওরে দুষ্টু! আমার গান শুনিস অথচ আমার নাম বলছিস না!’

বিদিবিএস 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।