আবারও ভয়ঙ্কর পরিবেশ তৈরির চেষ্টা হচ্ছে : কাদের


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-08-19 11:02:00 BdST | Updated: 2018-09-26 00:04:00 BdST

২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচনের সময়কার মতো আবারও ভয়ঙ্কর সহিংস পরিবেশ সৃষ্টির চেষ্টা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

রোববার রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনালে ঘরমুখো মানুষের ঈদযাত্রা পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

নির্বাচন পদ্ধতির পরিবর্তন না হলে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না- এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, দেশের সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন (ইসি) নির্বাচন পরিচালনা করবে। সে জন্য যে যে ডিপার্টমেন্ট দরকার সেগুলো ইসির অধীনে থাকবে। সে সময় বর্তমান সরকারের বা যে সরকার ক্ষমতায় থাকবে তাদের হাতে কোনো ক্ষমতা থাকবে না।

তিনি বলেন, এখন বিএনপি তো কিছুই মানে না, আইন মানে না, আদালত মানে না, সংবিধান মানে না, বিচার মানে না। আমি এ কথা পরিষ্কারভাবে বলতে চাই আগামী জাতীয় নির্বাচনে তারা হেরে যাবে। সে কারণে তারা এখন নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার অজুহাত খুঁজতে পারে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারা দেশে ২০১৪ সালের মতো একটা ভয়ঙ্কর সহিংস পরিবেশ সৃষ্টির গ্রুপিং করছে। বিদেশে বসে তাদের এই খোয়াব বাংলাদেশের জনগণ পূরণ হতে দেবে না। বিএনপি সহিংসতার আশ্রয় নিলে জনগণ তা প্রতিহত করবে, করা হবে।

মওদুদ আহমেদকে বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে- বিএনপির এমন দাবির বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ওবায়দুল কাদের বলেন, এই অভিযোগের জবাব দিতে চাই না। তার বাড়ির সামনে কোনো ধরনের অবরুদ্ধ সে না। বিএনপির লোকও নাই আওয়ামী লীগের লোকও নাই। মওদুদ আহমেদের এটাই হচ্ছে অভ্যাস।

তিনি বলেন, কোটা আন্দোলনের নেপথ্যের কুশীলবদের মধ্যে উনি হচ্ছেন প্রধান ব্যক্তি। সেখানে আন্দোলনে তিনি ফেল করে রমজানের ঈদে বাড়ি গিয়ে একটা নাটক করেছেন। এটা অবরুদ্ধ হওয়ার একটা নাটক। কে কেউ অবরুদ্ধ করেনি। এলাকায় তার সেই অবস্থা নেই, অযথা তার গুরুত্ব আমি কেন বাড়াবো।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, মওদুদ আহমেদের সেই গুরুত্ব নেই এলাকায় প্রতিনিধিদের দিয়ে খবর নিন। উনি গেছে একটা ইস্যু তৈরি করার জন্য। কোনোদিনও ঈদের আগে বাড়ি যাননি। এবার গেছেন, রোজার ঈদেও গেছে এই ঈদেও গেছে। তার উদ্দেশ্য হলো অবরোধের একটা নাটক তৈরি করা, সেই নাটক তৈরি করা। তার বাড়ির সামনে কোনো পুলিশ নেই। এটা মিথ্যাচরের একটা নাটক।

এবারের ঈদে বাংলাদেশের ইতিহাসে অতীতের যে কোনো সময়ের চাইতে সড়কের অবস্থা অনেক ভালো থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে এ সময় সড়কের অবস্থা অনেক ভালো। এটা আমি বলতে পারি।

তিনি আরও বলেন, যানজট তো শুধু সড়কের কারণে হয় না। আমি ঢাকা-টাঙ্গাইলে সড়কের খবর নিয়েছি এখনও কোনো যানজটের খবর পাইনি। যানজট হবে না এটা আমি বলবো না। মঝে মাঝে গাড়ি বিকল হয়ে যায়। ঘাটে ফেরি বিলম্বিত হওয়ার কারণে অনেক সময় ঘাটে গাড়ির যানজট হয়। ফেরিঘাটে একটু যানজট হয়।

তিনি বলেন, পশুবাহী গাড়িগুলো একটু ধীরগতির হয় এ কারণে সড়কে অন্য গাড়িরও একটু ধীরগতি হয়। আশা করি এবার ঈদযাত্রা গতবারের চেয়ে স্বস্তির হবে। স্পর্শকাতর পয়েন্টে আমরা এবার র্যাব মোতায়েন করেছি যাতে করে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা না হয়।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজট নিরসনে মেঘনার পরে এবার গোমতী নদীতেও রোববার থেকে ফেরি সার্ভিস চালু করা হবে বলে জানান তিনি।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।