বিএনপি আমাকে বহিষ্কার করলেও আমি বহিস্কৃত হবো না: জাহিদ


Politics
Published: 2019-04-26 00:10:36 BdST | Updated: 2019-11-22 19:50:08 BdST

দলের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে শপথ নেয়া ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের বিএনপি দলীয় এমপি জাহিদুর রহমান বলেছেন, সংসদে গিয়ে তিনি দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সোচ্চার থাকবেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর কাছে শপথ নেয়ার পর সাংবাদিকের কাছে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি একথা বলেন।

জাহিদ বলেন, ‘বিএনপি আমাকে বহিষ্কার করলে করতে পারে। কিন্তু, আমি বহিষ্কার হব না।’

এর আগে বেলা ২টার দিকে গোপনীয়তায় স্পিকারের কার্যালয়ে শপথ নেন বিএনপির এই নেতা। কেউ শপথ নিতে চাইলে সংসদ সচিবালয় আগে থেকেই দিনক্ষণ জানায়। কিন্তু, জাহিদুর রহমানের বেলায় সেটা মানা হয়নি।

জনগণের প্রত্যাশা পূরণে শপথ নিয়েছেন দাবি করে জাহিদ বলেন, ‘দল আমাকে বহিষ্কার করতে পারে জেনেও আমি শপথ নিয়েছি। জনগণের প্রত্যাশা পূরণেই শপথ নিয়েছি। বহিষ্কার করলেও আমি দল ছাড়ব না। আমি এই দলের একজন নিবেদিত প্রাণ। ছাত্রজীবন থেকে দীর্ঘ ৩৮ বছর দলের সঙ্গে আছি।’

তিনি বলেন, ‘আগেও আমি তিনবার নির্বাচন করেছি। সফল হতে পারেনি। চতুর্থবারে এসে বিজয়ী হয়েছি। ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে আগে কখনো বিএনপি বিজয়ী হয়নি। স্বাধীনতার পর থেকে এটি আওয়ামী লীগের। এই প্রথম বিএনপির হলো।’

জাহিদ বলেন, ‘আমি শপথ নেয়ার জন্য দলের নেতাদের সঙ্গে দেখা করেছি, কথা বলেছি। কিন্তু সম্মতি পাইনি। তারা কোনোভাবেই সম্মতি দেননি। দলের এখন পর্যন্ত সিদ্ধান্ত কেউ শপথ নিবেন না।’

তিনি বলেন, ‘আমার নেত্রীর মুক্তির জন্য সংসদে যে ভূমিকা রাখা দরকার, সেটি আমি করব। বিশেষ করে আমার এলাকার হাজার হাজার নিরপরাধ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য সংসদে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আহ্বান জানাব যে, আপনি এসব দেখেন। কারণ, এসব মামলার বাদী পুলিশ। পুলিশ মিথ্যা মামলা দিয়েছে। আপনার লোক কোনো মামলা করেনি। কাজেই আপনার এসব দেখা উচিত। গণতন্ত্রের স্বার্থে সেসব মামলা প্রত্যাহারের আমি দাবি রাখব। আমার নেত্রী বয়স্কা, ৭৩ বছর বয়স। উনাকে যেন গণতন্ত্রের স্বার্থে মুক্ত করে দেয়া হয়, সংসদে এই আহ্বান আমি জানাব। এটাই আমার প্রথম অঙ্গীকার।’