ঢাকা-৫ আসনে মনিরুল ও নওগাঁ-৬ এ হেলালকে মনোনয়ন দিল আ.লীগ


Dhaka
Published: 2020-09-07 13:22:52 BdST | Updated: 2020-09-21 19:30:34 BdST

জাতীয় সংসদের ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচনে মনিরুল ইসলাম মনু ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে আনোয়ার হোসেন হেলালের মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এক ভিডিও কনফারেন্সে সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) এ তথ্য জানান।

আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য (এমপি) হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে ঢাকা-৫ আসন ও ইসরাফিল আলমের মৃত্যুতে নওগাঁ-৬ আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়েছিল।

কাজী মনিরুল ইসলাম মনু রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি। ষাটের দশকের শেষে তখনকার জগন্নাথ কলেজে পড়ার সময় তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িত হন। আর আনোয়ার হোসেন হেলাল নওগাঁর রানীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি।

এরইমধ্যে পাঁচটি আসনের আসন্ন উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করার লক্ষ্যে সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভায় বসে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। দলের সংসদীয় বোর্ডের সভায় ইতোমধ্যে ঈশ্বরদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নুরুজ্জামান বিশ্বাসকে পাবনা-৪ আসনে দলীয় প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে। আর সামনে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ঢাকা-৫ এবং নওগাঁ-৬ আসনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছেন সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ড সভাপতি শেখ হাসিনা।

দলীয় সূত্র জানায়, রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা মনোনয়ন ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনে দলীয় প্রার্থীও নাম চূড়ান্ত করে হস্তান্তর করেছেন।

এর আগে রোববার বিকেলে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক ও লে. কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান এবং প্রচারও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ।

এর আগে, দলের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, ‘সংসদীয় বোর্ডের সভায় পাবনা-৪ আসনে মনোনয়ন ঘোষণার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আসনটিতে ইতিমধ্যে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। অন্য চারটি আসনে মনোনয়ন চূড়ান্ত করার দায়িত্ব আওয়ামী লীগ সভাপতির ওপর ছেড়ে দিয়েছে সংসদীয় বোর্ড। এগুলোতে মনোনয়নপ্রাপ্তদের নাম পরে ঘোষণা করা হবে।’

প্রসঙ্গত, জাতীয় সংসদের পাঁচটি শূন্য আসনের উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীকে মনোনয়নের প্রত্যাশায় ফরম সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন ১৪১ আওয়ামী লীগ নেতা। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ৫৬ জন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন ঢাকা-১৮ আসনের জন্য। পাঁচ শূন্য সংসদীয় আসনের মধ্যে মাত্র একটির উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়েছে, তারিখ নির্ধারিত হয়েছে আরও দু’টি আসনের উপনির্বাচনের। পাবনা-৪ আসনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর এই আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ২ সেপ্টেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাই ৩ হবে সেপ্টেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ৮ সেপ্টেম্বর।

বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) নির্বাচন ভবনে ইসির সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ শূন্য আসনে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৭ সেপ্টেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ২০ সেপ্টেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষদিন ২৭ সেপ্টেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ২৮ সেপ্টেম্বর সোমবার। আর ভোটগ্রহণ হবে ১৭ অক্টোবর। এ দুই আসনে ইভিএমে ভোট নেওয়া হবে।

গত ১৭ আগস্ট ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে পাঁচ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের জন্য মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়। মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমাদানের শেষ দিনে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া সারাবাংলাকে জানান, পাঁচটি আসনের জন্য ১৪১ জন আগ্রহী প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকা-১৮ আসনে মনোনয়ন চাইছেন ৫৬ জন। এছাড়া নওগাঁ-৬ আসনে ৩৪ জন, পাবনা -৪ আসনে ২৮ জন ও ঢাকা-৫ আসনে মনোনয়ন পেতে ২০ জন ফরম সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন।

ঢাকা ৫ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী, বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাবেক সহসভাপতি হারুন-উর-রশিদ, রমনা থানা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ কাশেম, যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী মনিরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক হারুনর রশিদ মুন্না, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক উপকমিটির সাবেক সদস্য চৌধুরী সাইফুন্নবী, আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য সালাউদ্দিন আহমেদ, যুব মহিলা লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক নাদিয়া পারভীন ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন, মেহরিন মোস্তাফা দিশীসহ অন্যান্যরা।

নওগাঁ-৬ আসনে প্রার্থী ছিলেন প্রয়াত সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলমের স্ত্রী মোছা. সুলতানা পারভীন, আত্রাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছা. মমতাজ বেগম, সহসভাপতি মোহাম্মদ আক্কাস আলী প্রামাণিক ও সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদ ইসলাম বিপ্লব, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য (১৯৭৩-৭৪) শেখ মো. রফিকুল ইসলাম, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি মো. নওশের আলী, নওগাঁ জেলা যুবলীগের সভাপতি খোদাদাদ খান ও সাধারণ সম্পাদক বিমান কুমার রায়, রাণীনগর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মান্না মেহেদী মানিক।