‘ঢাবি অধ্যাপক বারকাত নিজেই দেউলিয়া, চোরের মায়ের বড় গলা’


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-02-09 20:58:33 BdST | Updated: 2018-08-14 20:23:52 BdST

জনতা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল বারকাতের কড়া সমলোচনা করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। তাকে ‘দেউলিয়া’ বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে নাগরিক ছাত্র ঐক্য আয়োজিত ‘প্রশ্নপত্র ফাঁস, শিক্ষা এবং শিক্ষাঙ্গন’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

আবুল বারকাতকে উদ্দেশ করে মান্না বলেন, তিনি বলেছিলেন- যদি সঠিকভাবে খোঁজ নেয়া যায়, দেখা যাবে অর্ধেক ব্যাংক দেউলিয়া। কিন্তু আজকে দেখা যাচ্ছে বারকাত নিজেই দেউলিয়া। কথায় আছে, চোরের মায়ের বড় গলা।

প্রসঙ্গত, জনতা ব্যাংক এক গ্রাহককেই মাত্র ৬ বছরে দিয়েছে ৫ হাজার ৫০৪ কোটি টাকার ঋণ ও ঋণসুবিধা। নিয়মনীতি না মেনে এভাবে ঋণ দেয়ায় বিপদে পড়েছে ব্যাংকটি। আর গ্রাহকও ঋণ পরিশোধ করতে পারছেন না।

ভাগ্যবান এই গ্রাহক হচ্ছে এননটেক্স গ্রুপ। এর পেছনের মূল ব্যক্তি হচ্ছেন মো. ইউনুস (বাদল)। তিনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি)। তারই স্বার্থসংশ্লিষ্ট ২২ প্রতিষ্ঠানের নামে সব ঋণ নেয়া হয়। তার মূল ব্যবসা বস্ত্র উৎপাদন ও পোশাক রফতানি।

জনতা ব্যাংকের মোট মূলধন ২ হাজার ৯৭৯ কোটি টাকা। মূলধনের সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ দেওর সুযোগ আছে। অর্থাৎ এক গ্রাহক ৭৫০ কোটি টাকার বেশি ঋণ পেতে পারেন না। অথচ দেয়া হয়েছে মোট মূলধনের প্রায় দ্বিগুণ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আবুল বারকাতের চেয়ারম্যান থাকার সময় এই অর্থ দেয়া হয়। ২০০৯ সালের ৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৫ বছর জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি।

আলোচনা সভায় নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক আরও বলেন, এক বছরে ৭০ হাজার কোটি টাকা যদি পাচার হয়, সবমিলিয়ে ছয় লাখ কোটি টাকার উপর পাচার করা হয়েছে। সেই জন্যই অর্থমন্ত্রীর কাছে সাড়ে চার হাজার কোটি টাকা কোনো কিছুই মনে হয় না।

‘প্রধানমন্ত্রীর অনেক আগেই সংসদে বলেছিলেন- কারা কারা বিদেশে কি কি পাচার করছে, সেই খবর আমার কাছে আছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কারো নামে কোনো মামলা হতে দেখেনি’ যোগ করেন তিনি।

সরকারকে উদ্দেশ করে নাগরিক মান্না বলেন, আপনারা খালেদা জিয়ার আড়াই কোটি টাকার বিচার করছেন ঠিক আছে। ঠিক তেমনি এই ছয় লাখ কোটি টাকা পাচারকারীদের বিচারও করেন।

এ সময় তিনি বলেন, বিএনপিতে গণতন্ত্রের চর্চা নেই বলেই উত্তারাধিকার হিসেবে খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন, নাগরিক ছাত্র ঐক্যের আহ্বায়ক নাজমুল হাসান, ছাত্রনেতা মোস্তাফা কামাল, ছাত্রনেতা রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

সূত্র: পরিবর্তন ডেস্ক

 

বিডিবিএস 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।