নাটোরে বাঁশঝাড়ে মিলল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের মরদেহ


Natore
Published: 2020-01-06 02:34:05 BdST | Updated: 2020-01-25 15:14:37 BdST

নাটোরে নিখোঁজের একদিন পর কামরুল ইসলাম (২০) নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার (৫ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে সদর উপজেলার হালসা গ্রামের জনৈক নুরু মিয়ার বাঁশঝাড় থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

কামরুল নবীনকৃষ্ণপুর গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে। তিনি নাটোরের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রাজশাহী সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির (আরএসটি) বিবিএর ছাত্র।

নিহতের পরিবারের দাবি, শনিবার ৪ (জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে কে বা কারা কামরুলকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর আর বাড়ি ফিরে আসেননি তিনি। পরে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে রোববার দুপুরে সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করে তার পরিবার। বিকেলে এলাকার শিশুরা খেলতে গিয়ে বাঁশঝাড়ের ভেতর পায়ের মোজা দেখতে পায়। পরে রাত ৮টার দিকে পরিবারের লোকজন নুরু মিয়ার বাঁশ বাগানে গিয়ে কামরুলের মরদেহ শনাক্ত করে। রাত সাড়ে ৯টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে কামরুলের মরদেহ উদ্ধার করে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ফরিদুল ইসলাম জানান, কামরুলের শরীরের কয়েকটি স্থানে কোপানোর চিহ্নসহ একটি চোখ তুলে নেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।