আইআইইউসিতে গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে শহীদ মিনারেই ফুল দিল ছাত্রলীগ


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-02-24 18:12:26 BdST | Updated: 2018-06-21 16:04:48 BdST

২১ শে ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বাঁধার মুখে আন্তর্জাজিত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের (আইআইইউসি), বড় কুমিরা স্থায়ী ক্যাম্পাসের শহীদ মিনারে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ফুলেল শ্রদ্ধা জানাতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। আর এই খবর যখন বিভিন্ন পত্রিকায় প্রচার হয়, ছাত্রলীগের সাথে চরম অবিচার ও বিমাতৃসুলভ আচরণ করা হয়েছে বলে মনে করেন' ছাত্রলীগের শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে শনিবার দেড়টায় তিনি ছুটে যান আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (আইআইইউসি) এবং সেখানে গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে মিছিল সহকারে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে উজ্জীবিত নেতাকর্মীরা। এরপর শহীদ মিনারে ফুল দেয়া হয় ছাত্রলীগের ব্যানারেই।

ফুল দিতে যাওয়ার সময় নেতা কর্মীদের সাথে গোলাম রাব্বানী 

শহীদ মিনারে ফুল দেয়া শেষে কেন্দ্রীয় লাইব্রেরীর সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে অনুপ্রেরণা ওও দিকনির্দেশনা মূলক বক্তব্য দেন গোলাম রাব্বানী। 

আই আই ইউ সি শাখা ছাত্রলীগের সিনিয়র নেতা শাওন বলেন, "রাব্বানী ভাইয়ের মত একজন সাহসী, আদর্শিক নেতার এমন অভাবনীয় উদ্যোগ আমাদের মাঝে নতুন প্রাণসঞ্চার করেছে। আমাদের আর কোন ভয় নেই, নবউদ্যোমে আমরা ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের সকল সাংগঠনিক কার্যক্রম ও মুজিব আদর্শের চর্চা চালিয়ে যাবো।"

গোলাম রাব্বানীর সঙ্গে উজ্জীবীত নেতা-কর্মীরা

এ সম্পর্কে গোলাম রাব্বানী বলেন, আমরা স্থানীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে কথা বলেছি। এখন থেকে তারা সহযোগিতা করবে। এই ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের সকল সাংগঠনিক কার্যক্রম চলবে, চলবে শিক্ষা-শান্তি-প্রগতির চর্চা চলবে। 

তিনি আরো বলেন, "আইআইইউসিতে ছাত্রলীগ যেন কোনভাবেই মাথাচাড়া দিতে না পারে, সেজন্য চেষ্টার কোন ত্রুটিই করে নাই এর ভিসি-প্রক্টরসহ পুরো প্রশাসন। গতবছর ছাত্রলীগ করার অপরাধে ২৯ জনকে বহিষ্কার করেছিলো ভিসি। আর এবার ব্যানারে ছাত্রলীগের নাম থাকায় ২১ শে ফেব্রুয়ারি ক্যাম্পাস শহীদ মিনারে ফুল দেয়ার অনুমিত মেলেনি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের। এখানে ছাত্রলীগের সাথে এমন বিমাতৃসুলভ আচরণ মানে তা পুরো বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জন্য মানহানিকর। 

ফুল দিতে যাওয়ার আগে নেতা কর্মীদের সাথে আলোচনায় গোলাম রাব্বানী 

উল্লেখ্য, শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে মহান একুশে ফেব্রুয়ারি সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসেন। শ্রদ্ধা নিবেদনের ফুলের তোড়ায় 'ছাত্রলীগ' লেখা থাকায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের ফুল দিতে বাধা দেয়। এর প্রতিবাদে ছাত্রলীগ বিক্ষোভ করে বিশ্ববিদ্যালয় গেটের সামনে ঢাকা–চট্টগ্রাম মহাসড়কে ব্যারিকেড দেয়। পুলিশের হস্তক্ষেপে আধঘন্টা পর ছাত্রলীগ ব্যারিকেড তুলে নিলে মহাসড়কে যান চলাচল আবার শুরু হয়।

বিডিবিএস 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।