জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম সমাবর্তন ফেব্রুয়ারিতে


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-09-24 23:32:14 BdST | Updated: 2018-10-17 03:56:06 BdST

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শিক্ষার্থীদের ১ম সমাবর্তন আগামী বছরের ফেব্রয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হবে বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সমাবর্তন প্রস্তুতি কমিটি। প্রতিষ্ঠার ১৩ বছর পর প্রথম সমাবর্তনের উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়টি। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় উপাচার্য কক্ষে সমাবর্তন কমিটির প্রথম সভায় এ সিন্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে কেরানীগঞ্জে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ভূমিতে প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। সমাবর্তনের আগেই জায়গাগুলো মাটি বা বালু দিয়ে ভরাট করা হবে। ২০০৫ সাল থেকে ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্র্থীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ে এমফিল ও পিএইচডি করা সকল শিক্ষার্থীদের এক সাথে সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রায় ২২-২৩ হাজার শিক্ষার্থী সমাবর্তন পাবে।

কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আতিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন বিজনেজ স্টাডিজ অনুষদের ডিন, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন, আইন অনুষদের ডিন, লাইফ অ্যান্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের ডিন, রেজিস্ট্রার, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, প্রক্টর, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, প্রধান প্রকৌশলী, ছাত্র-কল্যাণ পরিচালক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

সভায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রিয়াশীল সকল ছাত্র সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকগণ উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু সেখানে শুধু শাখা ছাত্রলীগে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়া অন্য কোনো সংগঠনের নেতাকর্মীদের দেখা যায়নি।

অন্যান্য ছাত্র সংগঠন কেন উপস্থিত ছিলনা এ বিষয়ে জানার জন্য কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. মো. আতিয়ার রহমানের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি মোবাইল রিসিভ করেননি।

প্রসঙ্গত, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত এক যুগ পার হলেও সমাবর্তনের আয়োজন করেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার সময়কার কলেজ আমলের চারটি ব্যাচের ১৯,২৭১ জন শিক্ষার্থীসহ প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষার্থী সমাবর্তন প্রত্যাশী। ১৬ সেপ্টম্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সমাবর্তন আয়োজনের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। পরে শিক্ষার্থীদের চাপের মুখে সমাবর্তন আয়োজন কমিটি গঠন করে কর্তৃপক্ষ। এই কমিটির সভা থেকে অবশেষে সমার্বতনের আশ্বাস মিলল।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।