ডাকসুর ২৮ বছরের অর্থের হিসাব দাবি


ঢাবি টাইমস
Published: 2019-05-30 23:39:07 BdST | Updated: 2019-06-21 02:34:43 BdST

দীর্ঘ ২৮ বছর ডাকসুর নির্বাচন না হলেও ডাকসুর নামে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বছরে ৬০ টাকা করে নেওয়া হয়েছে। হল সংসদের জন্যও আলাদা করে ৬০ টাকা নেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব পরিচালকের দপ্তরে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ২৮ বছর ধরে নেওয়া এ অর্থের সুনির্দিষ্ট হিসাব বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে নেই।

আজ বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত বাজেট সভায় ওই অর্থের হিসাব দাবি করেন ডাকসুর সদস্য তানভীর হাসান সৈকত। ওই হিসাব না দেওয়া পর্যন্ত বাজেট সভার বৈধতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। পরে জিএস গোলাম রাব্বানী ও এজিএস সাদ্দাম হোসেন বিষয়টি পরের কার্যনির্বাহী সভায় আলোচনা করা হবে বলে জানান।

তানভীর হাসান সৈকত বলেন, ‘দেশের সাধারণ মানুষের ট্যাক্সের টাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো চলে। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে যে অর্থ নেওয়া হয়, সেটিও তাঁর বা তাঁর পরিবারের কষ্টার্জিত অর্থ। সেই অর্থের হিসাব দেওয়ার আগে ডাকসুর বাজেট সভাকে আমি বৈধ মনে করি না।’

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।