প্রচেষ্টা থাকবে যাবতীয় বিচ্যুতি থেকে ক্রমাগত ভালো করারঃ সাদ্দাম


ঢাবি টাইমস
Published: 2019-06-04 03:48:52 BdST | Updated: 2019-09-16 00:54:38 BdST

সাত বছরেও অনার্স শেষ করতে না পারায় সমালোচনার মুখে মুখ খুললেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) এজিএস ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়া স্ট্যাটাসে অ্যাকাডেমিক বিষয় নিয়ে যাবতীয় সমালোচনাকে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি নিজের সীমাবদ্ধতাকে স্বীকার করে অ্যাকাডেমিকসহ চলার পথের যাবতীয় ত্রুটি-বিচ্যুতি সুধরে নিয়ে ক্রমাগত ভালো করার প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেছেন। সাদ্দাম হোসেনের ফেসবুক স্ট্যাটাসটি নিচে হুবহু তুলে ধরা হলো....

আমার 'একাডেমিক' বিষয় নিয়ে যাবতীয় সমালোচনাকে আমি স্বাগত জানাই। এটি সত্য যে ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে জনপরিসরে কথা বলতে আমি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি না, কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতি আমার দায়বদ্ধতা রয়েছে। আমি নিউজ, স্ট্যাটাস, মন্তব্যগুলো পড়েছি, মিমসগুলো দেখেছি এবং এটি অস্বীকার করার কোন সুযোগ নেই যে মতামতগুলো প্রায় সম্পূর্ণতই যৌক্তিক। একইসাথে আমি বলতে চাই, আমার এই সীমাবদ্ধতার জন্য রাজনৈতিক ব্যস্ততার অজুহাত, একাডেমিক বিষয়কে গুরুত্বপূর্ণ না ভাবার আদিখ্যেতা বা অপরাপর কোন গ্রহণযোগ্য কারণ নেই, এ দায় একান্তই আমার। আমি নিঃসঙ্কোচে স্বীকার করি, শিক্ষার্থীদের জন্য এটি কোন ভাল উদাহরণ নয়। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাকে আমি গুরুত্বপূর্ণ মনে করি এবং ছাত্ররাজনীতির কর্মীদের এই দায় আরও বেশি। আমার প্রচেষ্টা থাকবে নিজের ত্রুটিগুলোকে অতিক্রম করার, শুধু একাডেমিক নয়, আমার চলার পথের যাবতীয় বিচ্যুতিগুলো থেকে যতদূর সম্ভব নিজেকে ক্রমাগত ভালো করার। আমি সবসময় নিজের জীবনটা যাপন করতে চেয়েছি এবং তার অনেক কিছুই হয়তো সঠিক ছিল না, কিন্তু নিজেকে নিজের মুখোমুখি করার, নিজেকে সাধারণ মানুষের সামষ্টিক বিবেচনাবোধের আয়নার সামনে তুলে ধরার প্রতি অবিচল অনুরাগ ও নিষ্ঠা নিয়েই আমি বাকিটা পথ চলতে চাই। সকলের মঙ্গল হোক।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।