দিনে-রাতে অপূর্ব ক্যাম্পাস


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2019-08-20 22:46:30 BdST | Updated: 2019-09-22 10:48:17 BdST

প্রথম যেদিন ভর্তি পরীক্ষা দিতে এসেছিলাম, মূল ফটক দিয়ে ভেতরে পা রাখার সময়ই বিস্ময় নিয়ে আশপাশ দেখছিলাম। ভাবছিলাম—একটা ক্যাম্পাস এত সুন্দর হয় কী করে! শিক্ষকদের কোয়ার্টারগুলো দেখে অসম্ভব ভালো লেগেছিল, মনে হচ্ছিল একটা স্বপ্নের ভেতর ঢুকে পড়েছি। আম্মুর ডাকে যখন সংবিৎ ফিরে পেলাম, তখন নজর পড়ল হলের সামনে থাকা কে আর মার্কেটের দিকে। ক্যাম্পাসের ভেতর এত গোছানো একটা মার্কেট আছে, দেখে অবাক হয়েছিলাম।

রাতে বের হলাম ক্যাম্পাস দেখতে। তখনো জানতাম না, এত সুন্দর ক্যাম্পাসটি আমার হবে কি না। শুধু পড়াশোনা করেই যদি রাত পার করে দিই, তাহলে পরীক্ষা খারাপ হলে আর কখনো হয়তো এই ক্যাম্পাস ঘুরে দেখার সুযোগ হবে না। তাই সবাই যখন পরীক্ষার আগের রাতের তুমুল পড়ালেখায় ব্যস্ত, আমি বেরিয়ে পড়েছিলাম ক্যাম্পাস দেখতে। ভর্তি পরীক্ষার আগের রাতে ক্যাম্পাস যে নতুন রূপে সাজে, তা না দেখলে যে কী মিস করতাম, সেটা এখন বুঝি।

পরদিন পরীক্ষা দিতে গিয়ে দেখি আমার সিট পড়েছে সেই ফার্স্ট গেটের কাছে। যেখান থেকে শুরু ক্যাম্পাস সীমানা। তাই সেদিন আর দিনের পুরো সৌন্দর্য উপভোগ করা হয়নি, পরীক্ষা দিয়েই বাসায় ফিরে গিয়েছি। আমার সৌভাগ্য, এখানে পড়ার সুযোগও হয়ে গেছে।

এরপর থেকে প্রতিটা দিন ও রাতের সৌন্দর্যই ধারণ করে রাখি মন স্পটে। প্রতিদিন যেন এই সৌন্দর্যের লীলাভূমিতে নিজেকে নতুন করে খুঁজে পাই। একদিন যখন চলে যাব, তখন বড্ড মিস করব প্রিয় এই ক্যাম্পাসের প্রতিটা সকাল।

কুলসুম আক্তার, কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান অনুষদ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।