শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি জালিয়াতি চক্রের ছয়জন গ্রেপ্তার


টাইমস ডেস্ক
Published: 2019-11-13 21:27:47 BdST | Updated: 2019-12-14 02:40:53 BdST

সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াত চক্রের ছয় সদস্যকে আটক করে গতকাল মঙ্গলবার রাতে পুলিশে দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। পরে বুধবার (১৩ নভেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে মামলা করলে পুলিশ তাঁদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠিয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন বগুড়ার রংপুরের পাকপুর এলাকার রিয়াদুল জান্নাত, বগুড়া শহরের কলেজ বটতলা এলাকার জাহিদ হাসান, বগুড়ার মাঝিরা শাহজাহানপুরের সাকিদুল ইসলাম, বগুড়া রহিমাবাদ শাহজাহানপুরের আবিদ মোর্শেদ ও বগুড়ার বৃন্দাবনপাড়ার আরিফ খান। তাঁরা সবাই ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি করে মেধাস্থান অর্জন করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জহীর উদ্দিন আহমেদ এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গতকাল ভর্তি হতে এলে তথ্য-উপাত্ত যাচাইয়ে জালিয়াতির বিষয়টি ধরা পড়ে। এরপর গতকাল বিকেল থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত দফায় দফায় ওই শিক্ষার্থীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রক্টরিয়াল বডি। একপর্যায়ে রিয়াদুল, জাহিদ ও সাকিদুল জালিয়াতি করে ভর্তির বিষয়টি স্বীকার করেন। তবে আরিফ ও আবিদ স্বীকার করেননি।

প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যদের রিয়াদুল জান্নাত বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টি টেকনোলজি বিভাগের সামিউল ইসলাম নামের এক শিক্ষার্থীকে ৭ লাখ টাকা দিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। পরে সামিউলকে ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একসময় তিনিও জালিয়াতিতে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। রাত ১১টায় ছয়জনকেই পুলিশের হাতে তুলে দেয় প্রশাসন।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অকিল উদ্দিন আহমদ বলেন, অভিযুক্ত ছয়জনকে আদালতে নেওয়া হচ্ছে। আদালতের নির্দেশনা অনুসারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসকে/ ১৩ নভেম্বর ২০১৯