শতাধিক করোনা রোগীর জিনোম সিকোয়েন্সিং করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়


ঢাবি টাইমস
Published: 2020-05-15 03:14:10 BdST | Updated: 2020-05-29 12:20:24 BdST

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করা করোনাভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্সিং (জীবনরহস্য বা জিন নকশা) ও মানবদেহে এর ভিন্নমাত্রার প্রভাব নিয়ে কাজ করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। প্রাথমিকভাবে শতাধিক রোগীর জিনোম সিকোয়েন্স করবে এই বিশ্ববিদ্যালয়।

বৃহস্পতিবার (১৪ মে) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর অ্যাডভান্স রিসার্চ ইন সায়েন্স ভবনের কনফারেন্স রুমে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য জানানো হয়।

সভায় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনাভাইরাস রেসপন্স টেকনিক্যাল কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. শরীফ আখতারুজ্জামান। এছাড়া সভায় জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. ইমদাদুল হকের সভাপতিত্বে সেন্টার ফর অ্যাডভান্স রিসার্চ ইন সায়েন্সের পরিচালক ও করোনা রেসপন্স টিমের সদস্য অধ্যাপক এম এ মালেক, অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক সাবিতা রেজওয়ানা রহমান, অণুজীব বিজ্ঞানী ইউজিসি অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত বিজ্ঞানী অধ্যাপক হাসিনা খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অধ্যাপক শরীফ আখতারুজ্জামান বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে শতাধিক রোগীর জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের কাজ করা হবে। তবে পর্যাপ্ত ফান্ডিং পেলে পরবর্তীতে ২০ হাজার জিনোম সিকোয়েন্স করা হবে। পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে এক কোটি টাকার মতো অর্থের প্রয়োজন হতে পারে বলে জানান তিনি।