করোনাভাইরাস

দুইদিন পরেও আইসিউ না পেয়ে বুকফাটা আর্তনাদ ঢাবি ছাত্রের


ঢাবি টাইমস
Published: 2020-05-15 20:56:26 BdST | Updated: 2020-05-29 12:25:55 BdST

করোনা আক্রান্ত হয়ে দুইদিন ধরে হাসপাতালে থেকেও  আইসিউ না পেয়ে বুকফাটা আর্তনাদ করে ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিলেন ঢাবি ছাত্র রাফি ।

নানান দিক থেকে আইসিউ পাবার আশ্বাস পেলেও এখনো ব্যবস্থা হয়নিি। করোনা আক্রান্ত এ ছাত্রের নাম নাজমুল হাসান রাফি। ২০১৫-১৬ সেশনের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্সুরেন্স বিভাগের শিক্ষার্থী তিনি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাফি এক ফেইসবুক স্ট্যাটাস জানান,

আমি ঢাবির বুকে মারা যাবো। শ্বাস টেনে বুক ফেটে যখন মারাই যাবো, আমি ঢাবিতে মারা যাবো। একটু বাতাস বুকে নিতে না পারার ব্যর্থতা, বুকের প্রচন্ড ব্যথা আর হৃদস্পন্দন যখন সেঞ্চুরি পার করে হাফ সেঞ্চুরি পার করবে, বুক ফেটে আমি সেখানেই মরবো।

আমার জন্য একটা আইসিইউ কখনই ব্যবস্থা হবে না।একটু পর আমি মল চত্ত্বর আসিতেছি। সিদ্ধান্ত নিয়েছি সেখানেই মরবো।

বর্তমান অবস্থাঃ

হার্ট রেইটঃ ১৫০
শ্বাসকষ্টে বুকে প্রচন্ড ব্যথা
অক্সিজেন ১০ লিটারে চলছে তবুও শ্বাস নিতে পারছি না।
চোখ দিয়ে পানি পরছে।
শত ডেকেও একটা নার্স বা ডক্টর কাউকে পাই নি।
মনে হচ্ছে সেন্সলেস হয়ে মারা যাচ্ছি।

রাফির ভাইয়ের বরদ দিয়ে ডাকসু নেতা আসিফ তালুকদার লিখেছেন, গতকাল থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি রাফির তাৎক্ষণিক খবর রাখা এবং প্রোক্টর স্যারকে আপডেট জানানো৷ যেহতু করোনার সাথে রাফির অ্যাজমার সমস্যা আছে সেহেতু আই সি ইউ ব্যবস্থা করা না করা গেলেও তাকে কাল থেকে অক্সিজেন দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে ডিএমসি৷ নিশ্চয়ই নাফীর সাথে বারবার যোগাযোগ করে তাকে সাহস দেওয়ার চেষ্টা করেছি, প্রোক্টর স্যারকে আপডেট জানিয়েছি, তার ভাইয়ের সাথে যোগাযোগ রাখছি তাকে সহযোগিতা করার জন্য৷ আইসিইউ বেড ফাকা হওয়ার আগে পারবেন কোন রোগিকে নামিয়ে দিয়ে আর একজনকে ওঠাতে ?

"মাত্র কথা বললাম তার ভাইয়ের সাথে৷ ডাক্তার তার ইসিজি করতে বলেছেন বলে তার ভাই জানালো। এবং মুগদাতে কোন এক হাসপাতালে আইসিইউ ব্যবস্থা করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন৷ এখন ধৈর্য ধরতে হবে৷"