ঢাবির অধিভুক্ত কলেজ মানে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নয়’


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2017-09-09 17:02:09 BdST | Updated: 2017-12-14 08:05:06 BdST

সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্তে সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয়েছে রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী সাত কলেজ। ১৯৯২ সালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার আগ পর্যন্ত এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা হতো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনেই।

সেশন জট নিরসন ও শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকার এ প্রতিষ্ঠানগুলোকে আবারও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয়। সে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চলতি মাসে তা বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

বিষয়টিকে বেশ ভালো নজরেই দেখছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম এ ফায়েজ। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি এর মাধ্যমে ওইসব কলেজে শিক্ষার গুণগত মান বাড়বে। সরকারও বিষয়টি মাথায় রেখেই এ উদ্যোগ নিয়েছে। আর অধিভুক্ত মানেই তো অন্তর্ভুক্ত নয়। এসব কলেজ তো আগেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ছিল। আমি বিষয়টিকে খারাপভাবে দেখছি না।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বর্তমানে ১০৪টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এর মধ্যে আছে সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল, টেক্সটাইল এবং গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ। ১০৪টি কলেজের মতোই চলবে সম্প্রতি যুক্ত হওয়া অধিভুক্ত সাত কলেজ। অধিভুক্ত অন্যান্য কলেজের মতো নতুন সংযোজিত সাতটি কলেজের শিক্ষার্থীরা পাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্টিফিকেট। তবে সার্টিফিকেটে স্পষ্টভাবে উল্লেখ থাকবে অধিভুক্ত স্ব-স্ব কলেজের ও বিভাগের নাম। সাধারণত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেটে হল ও বিভাগের নাম উল্লেখ থাকে।

অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের কোনোভাবেই নিজেদের ঢাবির শিক্ষার্থী হিসেবে পরিচয় দেয়ার সুযোগ নেই।

অধিভুক্ত কলেজগুলোর পাঠ্যক্রম তৈরি করে দেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরীক্ষার দিন-তারিখ নির্ধারিত হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন থেকে। তবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে স্ব-স্ব কলেজে। ফলাফল প্রণয়নও হবে প্রশাসনিক ভবন থেকে। ঢাবির অধিভুক্ত অন্যান্য কলেজের মতো পৃথক ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে অধিভুক্ত কলেজগুলোতে ভর্তি হতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। তবে এটি কোনোভাবেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা বলে গণ্য হবে না।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, সাতটি কলেজ ঢাবির অধিভুক্ত অন্যান্য কলেজের মতো শুধু প্রশাসনিক সুবিধা পাবে। ওইসব কলেজে শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধির লক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শুধু সহযোগিতা করবে। এটি কোনোভাবেই ঢাবির অন্তর্ভুক্ত নয়।

অনলাইন এক্টিভিস্ট ঢাবি শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ শাহীন বলছেন, অনেকেই সরাসরি নিজেদের কলেজের নাম উল্লেখ না করে ঢাবির ছাত্র পরিচয় দিচ্ছেন। যেটা নীতিহিন ও অজ্ঞতা।অনেকে আবার ফেসবুকেও লিখে রেখেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। দেখে বুঝার কায়দা নাই যে সে ঢাবির অধিভুক্ত কলেজের হাত্র। এতে সরাসরি ঢাবির যারা ছাত্র তারা অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।  

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত হয় রাজধানীর সরকারি সাত কলেজ। ওইদিন সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দফতর সংলগ্ন লাউঞ্জে উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে সাতটি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষদের নিয়ে এক সভায় এ সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।

কলেজগুলো হলো- ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর সরকারি বাংলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ। এসব কলেজে অনার্স ও মাস্টার্স পর্যায়ে বর্তমানে ১ লাখ ৬৭ হাজার ২৩৬ জন ছাত্র-ছাত্রী এবং ১ হাজার ১৪৯ জন শিক্ষক রয়েছেন। জাগো নিউজ। 

 এমএসএল 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।