জাবির ভর্তি পরীক্ষার জালিয়াতিতে তিন শিক্ষার্থী আটক, একমাসের কারাদন্ড


জোবায়ের কামাল
Published: 2017-10-10 09:39:47 BdST | Updated: 2017-10-21 12:30:16 BdST

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের গাণিতিক ও পদার্থ বিষয়ক অনুষদের ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে তিন শিক্ষার্থীকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

সোমবার (০৯ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ৪০৫ নং কক্ষ থেকে দ্বিতীয় শিফটের পরীক্ষা চলাকালে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটকৃত শিক্ষার্থীরা হলেন, কামরুজ্জামান রাজ্জাক (১৯) খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের স্নাতক দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী। মোহাইমিনুল ইসলাম সালমান (১৯) জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতাত্ত্বিক বিজ্ঞান বিভাগের ৪৬তম আবর্তনের শিক্ষার্থী। আব্দুল্লাহ আল নোমান (১৯) নোয়াখালী সরকারী কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের স্নাতক প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

রাজ্জাক প্রক্সি দেয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, ‘আমি আমার বন্ধু মোহাইমিনের কথায় পরীক্ষা দিতে এসেছি। ও বলেছিল এখানে পরীক্ষা দিতে কোন সমস্যা নাই, চেক করা হয় না।সুতরাং ভয় পাওয়ার কোনও কারন নেই।’

মোহাইমিন বলেন, ‘আমি আমার বন্ধু শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সারোয়ারের ছোট ভাইর হয়ে প্রক্সি পরীক্ষা দেয়ার জন্য আরেক বন্ধু কামরুজ্জামান রাজ্জাকের সাথে তিন লাখ টাকার চুক্তির সমন্বয় করে দেই। বাকি সব কথাবার্তা তাদের মধ্যে হয়েছে আমি কিছু জানিনা।’

এদিকে আব্দুল্লাহ আল নোমান জালিয়াতির কথা অস্বীকার করে বলেন, আমি আমার বন্ধুর সাথে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘুরতে আসি। এ বিষয়ে আমি কিছুই জানতাম না।

পরবর্ততী রাত নয়টার দিকে সকল অভিযোগ ও প্রমাণাদির ভিত্তিতে অভিযুক্ত কামরুজ্জামান রাজ্জাক ও মোহাইমিনুল ইসলাম সালমান কে ১৮৬০ দ-বিধির ১৮৮ নং ধারা অনুযায়ী একমাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করে ভ্রাম্যমান আদালত। অপরদিকে ঘটনার সাথে কোন সংশ্লিষ্টতা না থাকায় আব্দুল্লাহ আল নোমানকে মওকুফ করে দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য অভিযুক্ত রাজ্জাক হাতিয়ার মৃত হাবিব উল্লাহ বাহারের ছোট ছেলে রাজ্জাক নোয়াখালীর আলী আহমেদ মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় ও সরকারী বিজ্ঞান কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র ছিল। মোহাইমিনুল নোয়াখালীর বুড়িরচর থানার জাকির হোসেনের ছেলে নোয়াখালীর এ এম উচ্চ বিদ্যালয় ও বাংলদেশ নেভী কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র ছিল।

আরএইচ/ ১০ অক্টোবর ২০১৭

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


পাবলিক ইউনিভার্সিটি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত