বেরোবির পরীক্ষার ফলাফলে এগিয়ে মেয়েরা


বেরোবি টাইমস
Published: 2017-10-12 09:23:24 BdST | Updated: 2017-10-21 12:32:01 BdST

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) পরীক্ষার ফলাফলের শ্রেষ্ঠত্বের দিক থেকে ছাত্রদের তুলনায় এগিয়ে ছাত্রীরা। শুধু তাই নয় বিভিন্ন সৃজনশীল উদ্ভাবনেও ছেলেদের চেয়ে এগিয়ে থাকছে মেয়েরা।

বুধবার (১১ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ায় আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন নীল দলের আয়োজনে ‘প্রাপ্তি ও প্রত্যাশার ৯ বছর: আমাদের করণীয়’ শীর্ষক একটি গোলটেবিল বৈঠক শিক্ষার্থীদের নিয়ে করা এক জরিপে এ তথ্য উঠে আসে।

বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. তুহিন ওয়াদুদের সঞ্চালনায় গোলটেবিল বৈঠকে বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. নাজমুল হক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। প্রবন্ধে অধ্যাপক নাজমুল হক গত নয় বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্জন ও সম্ভবনাগুলো তুলে ধরেন।

নীল দলের সভাপতি ড. শফিক আশরাফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন নীল দলের সাধারণ সম্পাদক আপেল মাহমুদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বেরোবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী।

গোলটেবিল বৈঠকে পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন বিভাগ চালুকরণ, প্রযুক্তিগত সুবিধা প্রদান প্রয়োজন।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষক এটিএম জিন্নাতুল বাশার বলেন, পর্যাপ্ত শিক্ষক নিয়োগ এবং ক্লাশ রুম বাড়ানোর জোর দেয়া দরকার।

পদার্থজ্ঞিান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বকুল কুমার চক্রবর্তী কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা রাখা এবং গরিব মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য মেধাবৃত্তি চালু দাবি জানান।

অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের শিক্ষার্থী রোবকনুজ্জমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়য়ে টিএসসিসি প্রতিষ্ঠা করা জরুরি।

বেরোবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. কামরুল হাসান নোবেল শেখ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে আমাদের শিক্ষক রাজনীতির বিভাজন দূর হওয়ার পাশাপাশি ছোট বিষয় থেকে বড় বিষয় পর্যন্ত সকল ক্ষেত্রে আমাদের ইতিবাচক মনোভাবের পরিচয় দেয়া জরুরি।

বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী হাফিজা রহমান হ্যাপী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রীদের কমনরুম সুবিধা ও নামাজ ঘর থাকা জরুরি। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার শুক্র ও শনিবার চালু রাখার দাবি জানাই। মানুষিক বিকাশে নিয়মিত খেলাধুলার আয়োজন করার দাবি জানান তিনি।

লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী মাহফুজুল ইসলাম বকুল বলেন, অপরাজনীতি দূর না হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজ ব্যহত হবে। তাই সকল অপরাজনীতি মুক্ত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপাচার্য উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল সমস্যা নিয়মতান্ত্রিকভাবে সমাধান করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিবাচক দিক তুলে ধরতে হবে।

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালের ১২ অক্টোবর রংপুর বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০০৯ সালের ৮ এপ্রিল নাম পরিবর্তন করে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর নামকরণ হয়। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর একদিন আগে নয় বছর পূর্তিতে এ অনুষ্ঠোনের আয়োজন করা হয়।

এমএস/ ১২ অক্টোবর ২০১৭

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


পাবলিক ইউনিভার্সিটি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত